রাজশাহীতে অসামাজিক কর্মকাণ্ডের দায়ে ৪ তরুণীসহ ৬ জনের কারাদণ্ড

পুঠিয়া রাজশাহী

রাজশাহী পুঠিয়া উপজেলার একটি আবাসিক হোটেলে অসামাজিক কর্মকাণ্ডের দায়ে চার তরুণীসহ ছয়জনকে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শনিবার (২৬ আগস্ট) দুপুরে পুঠিয়া উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শফিকুর আলম এ দণ্ডাদেশ দেন। পরে তাদের রাজশাহী কারাগারে পাঠায় পুলিশ।

এর আগে শনিবার সকাল বেলা ১১টার দিকে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বর বাজারে ‘গ্রীন’ নামের একটি আবাসিক হোটেলে অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকায় ছয়জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে তাদের হাজির করা হলে আদালতে তারা দোষ স্বীকার করেন।

রাজশাহীর পুঠিয়া থানার কর্তব্যরত অফিসার উপ-পরিদর্শক (এসআই) প্রণয় কুমার প্রামানিক জানান, ওই আবাসিক হোটেল থেকে মোট আট জনকে আটক করা হয়েছিলো। কিন্তু থানায় আনার পর যাচাই-বাছাই শেষে দুই যুবককে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তারা ঢাকা থেকে এসে ওই আবাসিক হোটেল সম্পর্কে না জেনেই সেখানে উঠেছিলেন।

তবে হোটেল থেকে আটক করা চার তরুণী ও আমিনুল ইসলাম (৩৪) নামে অপর এক ব্যক্তিকে দুই মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এছাড়া গ্রীন আবাসিক হোটেলের স্বত্বাধিকারী সোহাগ আলীকে (২৫) ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। পরে তাদের আদালতের নির্দেশে কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান এসআই প্রণয় কুমার।

খবরঃ বাংলানিউজ