রাজশাহীতে ঈদের কেনাকাটায় বের হলেই জরিমানা

রাজশাহী

করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় রাজশাহীর সব দোকানপাট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। তবুও নির্দেশ অমান্য করে ঈদের কেনাকাটা করতে মার্কেটে গেলে জরিমানা করছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। বৃহস্পতিবার (২১ মে) সকাল থেকে মহানগরীর সাহেববাজার এলাকায় অভিযান চালিয়েছেন জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

করোনার কারণে আগেই সারাদেশের মার্কেট-দোকানপাট বন্ধের সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু গত ১০ মে থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকানপাট খোলার সিদ্ধান্ত আসে। এরপর সামাজিক দূরত্ব না মেনেই ব্যবসা করছিলেন রাজশাহীর দোকানীরা। এ অবস্থায় গত সোমবার (১৮ মে) জেলা আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত কমিটির সভায় ওষুধ, জরুরি সেবা, খাবার ও কাঁচাবাজার ছাড়া রাজশাহীর সব দোকানপাট বন্ধের সিদ্ধান্ত হয়। এরপর থেকে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার (২১ মে) জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আরাফাত আমান আজিজ নগরীর সাহেব বাজার এলাকায় অভিযান চালান। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার আরডিএ মার্কেটের ৩ জন ব্যবসায়ী দোকান খোলেন। তাদের প্রত্যেককে ২ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। মঙ্গলবারও (১৮ মে) এই মার্কেটের এক ব্যবসায়ীকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছিল। যারা আরডিএ মার্কেটে ঈদের কেনাকাটা করতে গিয়েছিলেন তাদেরও এক হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানার টাকা না দিলে এক ঘণ্টা মার্কেটের সামনের রাস্তায় দাঁড় করিয়ে রাখা হয়।

জানতে চাইলে রাজশাহীর জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক বলেন, জনস্বার্থেই রাজশাহীর মার্কেট ও দোকানপাট বন্ধের সিদ্ধান্ত হয়েছে। শুধু রাজশাহী মহানগর নয়, সকল উপজেলার জন্যও এই সিদ্ধান্ত প্রযোজ্য। এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করতে প্রশাসন এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কাজ করছে। প্রয়োজন হলে তারা আরও কঠোর হবে।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজ