রাজশাহীতে ঈদের নামাজের সময়সূচি

রাজশাহী

রাজশাহীতে পবিত্র ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে ঐতিহ্যবাহী শাহ্ মখদুম (রহ.) কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে সকাল ৮টায়। হজরত শাহ মখদুম (রহ.) জামিয়া ইসলামিয়া মাদরাসার অধ্যক্ষ মুফতি শাহাদাৎ আলী এ জামাতে ইমামতি করবেন। বৈরী আবহাওয়া বিরাজ করলে একই সময়ে হজরত শাহ মখদুম (রহ.) দরগা মসজিদে একাধিক ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

সকাল ৭টায় নগরীর দ্বিতীয় প্রধান ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে টিকাপাড়ায় (মহানগর) ঈদগাহ ময়দানে। সকাল ৮টায় এখানে দ্বিতীয় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। বৈরী আবহাওয়ার কথা মাথায় রেখে এখানেও রাখা হয়েছে বিকল্প প্রস্তুতি।

সিটি কর্পোরেশন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের রাজশাহী বিভাগীয় অফিস ও নগরীর শাহ মখদুম দরগা ট্রাস্ট এ তথ্য জানিয়েছে।

রাজশাহী নগরীতে সিটি কর্পোরেশন প্রধান ঈদগাহ ছাড়াও ২৫টি ঈদগাহ প্রস্তুত করেছে। এসব ঈদগাহের বেশির ভাগেই সকাল ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া উপজেলা পর্যায়েও সকাল সাড়ে ৭টা থেকে সাড়ে ৮টার মধ্যেই ঈদ জামাত শেষ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

রাজশাহী শাহ মখদুম দরগা ট্রাস্ট এবং স্থানীয় সূত্রে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, নগরীতে প্রথম ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৭টায় নগরীর নওদাপাড়া আমচত্বর আহলে হাদিস মাঠে।

সকাল ৮টায় যেসব ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে- নগরীর সাহেব বাজার বড় রাস্তা, টিকাপাড়ায় (মহানগর) ঈদগাহ, হাজী লাল মুহাম্মদ ঈদগাহ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ঈদগাহ, রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ঈদগাহ, বুলনপুর ঈদগাহ, মসজিদ-ই-নূর ঈদগাহ, কয়েরদাড়া ঈদগাহ, মদিনাতুল উলুম কামিল মাদরাসা, ডিঙ্গাডোবা ঈদগাহ মাঠ, কাশিয়াডাঙ্গা সিটি গেট ঈদগাহ, কাশিয়াডাঙ্গা ঈদগাহ, মির্জাপুর পূর্বপাড়া ঈদগাহ, ফিরোজাবাদ ঈদগাহ এবং বালিয়াপুকুর জামে মসজিদ।

সকাল সোয়া ৮টায় ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে- বিভাগীয় স্টেডিয়াম (তেরখাদিয়া) ঈদগাহ, শিরোইল সরকারি হাই স্কুল ঈদগাহ, মালদা কলোনী ঈদগাহ, শিরোইল স্কুল ঈদগাহ এবং রামচন্দ্রপুর মহলদার পাড়া ঈদগাহে।

সকাল সাড়ে ৮টায় রাজশাহী জজ কোর্ট ঈদগাহ, লক্ষ্মীপুর ভাটাপাড়া ঈদগাহ, রায়পাড়া বশরি ঈদগাহ, কাঁঠালবাড়িয়া ঈদগাহ, রায়পাড়া ঈদগাহ, রাজশাহী কোর্ট স্টেশন ঈদগাহ, শালবাগান গণপূর্ত মাঠ, মোল্লাপাড়া ঈদগাহ, লক্ষ্মীপুর ভাটাপাড়া ঈদগাহ মাঠ, কোর্ট বুলনপুর ঈদগাহ মাঠ, খোজাপুর গোরস্থান ঈদগাহ মাঠ, সাতবাড়িয়া কেন্দ্রীয় ঈদগাহ, জাহাজঘাট মোড় ঈদগাহ মাঠ, খোজাপুর ১নং ঈদগাহ, পাঁচানী ঈদগাহ মাঠ সাতবাড়িয়া ঈদগাহ, বিনোদপুর আহলে হাদিস জামে মসজিদ, শহীদবাগ জামে মসজিদ, মেহেরচন্ডি বুধপাড়া কেন্দ্রীয় ঈদগাহ এবং ধরমপুর মধ্যপাড়া ঈদগাহে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া সকাল সাড়ে ৮টায় উপশহর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ ঈদগাহ, চৌদ্দপাই মোড় ঈদগাহ, খাদেমুল ইসলাম স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং তালাইমারি বাজার ঈদগাহ। সকাল সাড়ে ৮টায় কাজলা ঈদগাহ, ডাঁশমারী পূর্ব পাড়া ঈদগাহ, সপুরা শাহী জামে মসজিদ এবং বিএডিসি ঈদগাহে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে, জেলার বাঘায় ঐতিহাসিক শাহী মসজিদ কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে প্রধান ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৮টায়। জেলার মোহনপুর ঈদগাহ মাঠে সাড়ে ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া বাগমারা, তানোর, দুর্গাপুর, পুঠিয়া, চারঘাট, পবা ও গোদাগাড়ীতে সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ৮টার মধ্যে প্রধান ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

বৈরী আবহাওয়া বিরাজ করলে সেক্ষেত্রে স্থানীয় মসজিদগুলোতে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এক্ষেত্রে কোথাও কোথাও একাধিক জামাত হতে পারে বলে স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ জাগোনিউজ২৪