রাজশাহীতে ঈদের প্রধান জামাত সকাল ৮টায়

রাজশাহী

রাজশাহীতে আগামী সোমবার (২৫ মে) ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত সকাল ৮টায় হজরত শাহ মখদুম (রহ.) কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে। এতে ইমামতি করবেন মসজিদের পেশ ইমাম ও খতিব মাওলানা মো. মোস্তাফিজুর রহমান।

এখানে ঈদের দ্বিতীয় জামাত হবে সকাল ৯টায়। এতে ইমামতি করবেন মসজিদের সহকারী ইমাম হাফেজ রেজাউল করিম।

এছাড়া নগরের রানীবাজার জামে মসজিদে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৮টা ১৫ মিনিটে। এখানে ইমামতি করবেন মসজিদের খতিব মাওলানা শাহাদত আলী। তিনি সাধারণত প্রতিবছর রাজশাহীর হজরত শাহ মখদুম (রহ.) কেন্দ্রীয় ঈদগাহে ঈদের নামাজে ইমামতি করে থাকেন। কিন্তু এ বছর সেখানে জামাত অনুষ্ঠিত না হওয়ার কারণে এ মসজিদে ইমামতি করবেন।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে এবার সরকারি নির্দেশনা মেনে বিভাগীয় শহর রাজশাহীতেও মসজিদে ঈদের জামাত আয়োজন করা হচ্ছে।

রাজশাহীর হজরত শাহ মখদুম (রহ.) দরগাহ ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য সরকার শরীফুল ইসলাম শরীফ বলেন, প্রতিবছর ইসলামী ফাউন্ডেশন, সিটি করপোরেশন ও হজরত শাহ মখদুম (রহ.) দরগাহ ট্রাস্টি বোর্ড যৌথভাবে ঈদগাহগুলোতে ঈদ জামাতের সময় নির্ধারণ করা হতো। কিন্তু করোনা সংকটের ফলে সরকারি নির্দেশনার কারণে এবার রাজশাহীর কোনো ঈদগাহেই ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে না। তাই নিজ নিজ এলাকার মসজিদ কমিটিকে তাদের ঈদের নামাজ পড়ার সময় ঠিক করে নিতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, ঈদুল ফিতরের নামাজের জন্য সবাইকে এবার বাড়ি থেকেই ওজু করে আসতে হবে। সঙ্গে আনতে হবে জায়নামাজ। তারা মসজিদ ফটকে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখবেন। সরকারি নির্দেশনা মেনেই তারা ঈদের নামাজ আদায় করবেন।

এদিকে ঈদগাহের বদলে বাড়ির কাছে মসজিদে ঈদের নামাজ পড়তে নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। সেইসঙ্গে মসজিদে ঈদ জামাত আয়োজনের ক্ষেত্রে সুরক্ষার ব্যবস্থা এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বেশ কিছু শর্ত দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

এবার ঈদে সেই নির্দেশনা রাজশাহী মহানগরেও বাস্তবায়ন হবে বলে বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে মেট্রোপলিটন পুলিশ (আরএমপি)।

আরএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর) গোলাম রুহুল জানান, ঈদের নামাজে কাতারে দাঁড়ানোর ক্ষেত্রেও শারীরিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, মুসুল্লিদের জীবন ঝুঁকি বিবেচনা করে এ বছর পবিত্র ঈদুল ফিতরের জামাত ঈদগাহ বা খোলা জায়গার পরিবর্তে নিকটস্থ মসজিদে আদায়, মুসুল্লিদের মাস্ক পরিধান, কাতারে দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে শারীরক দূরুত্ব বজায় ও এক কাতার অন্তর দাঁড়ানো, জামাত শেষে কোলাকুলি ও হাত মেলোনা পরিহার ইত্যাদি বিষয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয় বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে। সেই নির্দেশনা রাজশাহী মহানগরেও বাস্তবায়ন করা হবে।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজ