রাজশাহীতে একজনের ১৬ দিন পর আবারও করোনায় আক্রান্ত

মোহনপুর রাজশাহী

রাজশাহীতে ঢাকাফেরত স্বামী-স্ত্রীর করোনা শনাক্ত হয়েছে। টানা ১০ দিন পর বৃহস্পতিবার তাদের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এছাড়া দ্বিতীয় দফায় পরীক্ষায় আরেকজনের করোনা ধরা পড়েছে।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজের (রামেক) ল্যাবে তাদের নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়। পুরোনো করোনা রোগীর বাড়ি মোহনপুরে। গত মাসে তার করোনা শনাক্ত হয়। তিনি করোনামুক্ত হয়েছেন কি-না তা জানতে আবারও পরীক্ষা করা হয়েছিল। কিন্তু ১৬ দিন পরও তার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে আবার।

নতুন করে আক্রান্ত স্বামী-স্ত্রী রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার বাসিন্দা। তারা ঢাকায় পোশাক তৈরির কারখানায় কাজ করেন। ১০ মে তারা গ্রামে ফেরেন।

এর আগে সর্বশেষ ৪ মে জেলার তানোর থানার এক পুলিশ কনস্টেবলসহ দুইজনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল। রাজশাহীতে ইতোমধ্যে করোনামুক্ত হয়েছেন ছয়জন। এখন অসুস্থ আছেন ১২ জন।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজের ভাইরোলজি বিভাগের প্রধান ডা. সাবেরা গুলনাহার বলেন, বৃহস্পতিবার দুই শিফটে ল্যাবে ১৮৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। ত্রুটি থাকায় ২১টি নমুনার রিপোর্ট হয়নি। রিপোর্ট পাওয়া গেছে ১৬৭টির। এর মধ্যে মোট চারজনের নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এদের একজনের বাড়ি নওগাঁয়। তিনি নারী। অন্য দুইজন রাজশাহীর বাগমারার বাসিন্দা। মোহনপুরের এক ব্যক্তির দ্বিতীয় দফায় করোনা পজিটিভ এসেছে। বিষয়টি সিভিল সার্জনকে জানানো হয়েছে।

রাজশাহীর সিভিল সার্জন ডা. এনামুল হক বলেন, শনাক্ত হওয়া তিনজনের মধ্যে একজন পুরোনো রোগী। বাগমারার নতুন দুইজন আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে। তিনি আক্রান্ত দম্পতির চিকিৎসার ব্যবস্থা করবেন। পুলিশ তাদের বাড়ি লকডাউন করবে।

রাজশাহী জেলায় ১২ এপ্রিল প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এ পর্যন্ত ১৯ জনের করোনা ধরা পড়েছে জেলায়। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন দুইজন। এছাড়া করোনায় প্রাণ গেছে একজনের।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ জাগোনিউজ২৪