রাজশাহীতে এবার ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হলেন সাংবাদিক

রাজশাহী

রাজশাহীতে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা আরও বাড়ছে। এবার ডেঙ্গুতে হলেন সাংবাদিক ফেরদৌস সিদ্দিকী। তিনি একটি অনলাইন পোর্টালের নিজস্ব প্রতিবেদক।

বুধবার (৩১ জুলাই) জ্বর নিয়ে হাসপতালে গেলে পরীক্ষা-নিরীক্ষায় তার ডেঙ্গু ধরা পড়ে। বর্তমানে তিনি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎধীন।

ফেরদৌস সিদ্দিকী বলেন, শুক্রবার (২৬ জুলাই) জ্বর আসে। আমি ভাইরাস জ্বর ভেবেছিলাম। কিন্তু জ্বর না কমায় আজ হাসপাতালে এসে ডেঙ্গু পরীক্ষা করি। পরীক্ষা-নিরীক্ষায় ডেঙ্গু ধরা পড়েছে।

এদিকে, বিভাগীয় শহর রাজশাহীতে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নতুন করে আরও ১৯ জন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছেন। মঙ্গলবার (৩০ জুলাই) পর্যন্ত হাসপাতালে ৪২ জন রোগী ভর্তি হয়েছিলেন।

ফলে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ৬১ জন। তবে এর মধ্যে আবার চিকিৎসা নিয়ে ২৩ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। তাই বর্তমানে ৩৮ জন ডেঙ্গু রোগী রামেক হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

রামেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক সাইফুল ইসলাম ফেরদৌস  জানান, মঙ্গলবার পর্যন্ত হাসপাতালে ৪২ জন রোগী চিকিৎসাধীন ছিলেন। বুধবার পর্যন্ত ভর্তি হন আরও ১৯ জন। তবে চিকিৎসা নিয়ে ফিরে গেছেন ২৩ জন। ফলে এখন চিকিৎসাধীন ৩৮ জন। তবে আক্রান্তরা সবাই রাজধানী ফেরত।

এখন পর্যন্ত রাজশাহীতে ডেঙ্গু জীবাণুবাহী কোনো রোগী রামেক হাসপাতালে ভর্তি হয়নি। এরপরও হাসপাতালে ডেঙ্গু কর্নারের পাশাপাশি বাড়তি সতর্কতা হিসেবে আলাদা ওয়ার্ডও খোলা হয়েছে। হাসপাতালের ২৫ নম্বর ওয়ার্ডকে আলাদাভাবে ডেঙ্গু ওয়ার্ড করা হয়েছে। সেখানে বর্তমানে ২০টি বেড রয়েছে। আলাদাভাবে করা ওই ডেঙ্গু ওয়ার্ডে চারজন চিকিৎসক ও ছয়জন নার্স দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়া হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের রেজিস্ট্রার চিকিৎসকরা সেখানকার ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসা কার্যক্রম মনিটরিং করবেন বলেও জানান রামেক হাসপাতাল উপ-পরিচালক।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর