রাজশাহীতে এবার মিললো মাটির নিচে গুপ্ত ঘর!

অপরাধ চারঘাট রাজশাহী

lali

রাজশাহীর চারঘাটে এবার মিললো মাটির নিচে গুপ্ত ঘর। সেই ঘরেই গোপনে তৈরি করা হতো নিম্নমানের চিটা বা লালি গুড়। যা মানবদেহের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।

মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার ভায়ালক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের পান্নাপাড়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে এই ঘরের সন্ধান পায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় চিটা গুড় ফ্যাক্টরির মালিক আড়ানী চক সিংগা গ্রামের নায়েব আলীকে হাতেনাতে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে নায়েবকে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পাওয়া যায় পান্নাপাড়া গ্রামে জনৈক ব্যক্তি মানব দেহের জন্য ক্ষতিকারক চিটা গুড় তৈরির কারখানা গড়ে তুলেছে। পরে সেখানে অভিযান চালিয়ে মাটির নিচে অভিনব কায়দায় তৈরি করা বিশাল হাউজের সন্ধান পাওয়া যায়। সেখানে রাখা হয়েছিল প্রায় ২০০ মণ চিটা লালি। আর তা দিয়ে গোপনে বিভিন্ন ধরনের কেমিকেল ব্যবহার করে চকচকে সাদা গুড় তৈরি করা হতো। পরে ওই ফ্যাক্টরির মধ্যে পেট্রোল ঢেলে দিয়ে তা ধ্বংস করা হয়েছে।

ওই কারখানার মালিক নায়েব জানান, তিনি ইতিপূর্বে আড়ানীতে মাটির নিচে হাউজ বানিয়ে চিটা গুড়ের ব্যবসা করছিলেন। কিন্তু সেখানে একটু সমস্যা দেখা দেয়ায় পরে পান্নাপাড়া গ্রামের আফতাব আলীর জমিতে কারখানা বানিয়ে এ ব্যবসা পরিচালনা করছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.