রাজশাহীতে কাপড় দেখেই চোর ধরলো পুলিশ

রাজশাহী

মাথায় হেলমেট পরে দুই ব্যক্তি চুরি করেছিলেন একটি ওষুধের দোকানে। ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরায় সে দৃশ্য ধরা পড়ে।

হেলমেট পরে থাকার কারণে সেসময় তাদের চেহারা চেনা যায়নি। তবে একজন চোরের পরনে থাকা টি-শার্টের মাধ্যমেই রাজশাহী নগরীর রাজপাড়া থানা পুলিশ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

গ্রেফতাররা হলেন- রাজপাড়া থানাধীন দাশপুকুর এলাকার আনসার আলী হকের ছেলে শহিদুল ইসলাম (৫০) ও জেলার চারঘাট উপজেলার আরাজি সাদিপুর থানাপাড়া এলাকার মৃত মাজদার রহমানের ছেলে সজিব হাসান (৩০)। সজিব নগরীর চৌদ্দপাই এলাকায় বসবাস করেন।

শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) নগরীর লক্ষ্মীপুর এলাকা থেকে প্রথমে সজিবকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে শনিবার (৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে একই এলাকা থেকে শহিদুলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। নগরীর রাজপাড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মেহেদী হাসান ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এএসআই) নুরুল ইসলামসহ পুলিশের একটি দল এ অভিযান চালায়।

পুলিশ জানায়, গত ২২ আগস্ট রাতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের সামনে অবস্থিত ‘শাহ মখদুম সার্জিক্যাল’ নামের একটি দোকানে চুরির ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে দোকান মালিক শওকত আলী থানায় অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। দোকানের সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দুজনকে দেখা গেলেও তারা হেলমেট পরে থাকার কারণে চেনা যাচ্ছিল না। তবে সজিবের পরনে থাকা লাল-হলুদ টি-শার্টের সূত্র ধরে তদন্ত শুরু করে পুলিশ। একপর্যায়ে সজিবকে চিহ্নিত করা যায়। এরপরই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় জিজ্ঞাসাবাদে তিনি তার সহযোগী হিসেবে শহিদুল ইসলামের নাম জানান। এরপর শহিদুলকেও গ্রেপ্তার করা হয়।

রাজপাড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক মেহেদী হাসান জানান, গ্রেফতার দুইজন জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন যে বিভিন্ন দোকানের তালা ভেঙে চুরি করাটাই তাদের পেশা। দিনে ঘুরে ঘুরে দোকান নির্ধারণ করে রাতে চুরি করেন। সম্প্রতি তারা নগরীর হড়গ্রাম এলাকার একটি মুঠোফোন রিচার্জের দোকানে চুরি করেছেন।

রাজপাড়া থানার ওসি শাহাদাত হোসেন খান বলেন, গ্রেফতার দুইজনের সঙ্গে আর কেউ জড়িত আছে কি না সে ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজ