রাজশাহীতে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

রাজশাহী

রাজশাহী মহানগরীতে ওড়নায় সঙ্গে গলায় ফাঁস দেওয়া অহস্থায় তানিয়া (১৯) নামে এক গৃহবধূ ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তানিয়া নগরীর মতিহার থানার বুধপাড়া এলাকার রিপনের স্ত্রী।আজ  সকালে মতিহার থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের মর্গে টেরন করেছে। মতিহার থানার ওসি (তদন্ত) মাহাবুব হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। নিহত গৃহবধূ তানিয়ার বাবা পুঠিয়ার বেলপুকুর এলাকার বাসিন্দা আমিনুল ইসলাম বলেন, আমার মেয়েকে হত্যার পর ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। আর নিহত তানিয়ার স্বামী রিপনের দাবি, আমি রাতে বাড়িতে ছিলাম না।

সকাল ১০টা পর্যন্ত তানিয়া ঘুম থেকে না উঠলে পরিবারের সদস্যরা ঘরের দরজা ভেঙে ঢোকেন। এসময় তাকে ফ্যানের সাথে ঝুলতে দেখা যায়। পরে পুলিশ এসে তার লাশ উদ্ধার করে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকালের দিকে রিপনের মা ছেলে বৌ তানিয়াকে ডাকতে গেলে তার সারা শব্দ না পাওয়ায় ঘরে গিয়ে দেখে ওড়নায় ঝুলে আছে। পরে স্থানীয়দের ও পুলিশকে ডাকা হয়। নগরীর পশ্চিম বুধপাড়া এলাকার রেজাউল ইসলামের ছেলে রিপনের সঙ্গে বিয়ে হয়ে বেলপুকুরের জামিরা এলাকার আমিনুলের মেয়ে তানিয়া। তানিয়ার স্বামী রিপন রড মিস্ত্রিরি কাজ করে। তানিরা বাবার অবস্থা ভালো হওয়ায় তাদের মধ্যে দন্ড চলে আসছিলো। আর আর তানিয়া ছিলেন জেদী স্বাভাবের ।

এ ব্যাপারে ওসি (তদন্ত) মাহবুব হোসেন বলেন, ময়নাতদন্তের পর প্রকৃত তথ্য জানা যাবে। আপাতত এ ব্যাপারে একটি অপমৃত্যুর একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে ময়না তদন্তে হত্যার স্পষ্ট তথ্য পাবার পরে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ ডেইলি সানশাইন