রাজশাহীতে ছাত্রকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে মাদরাসা অধ্যক্ষ গ্রেফতার

রাজশাহী

রাজশাহী নগরীতে ছাত্রকে যৌন নিপীড়নের দায়ে আবদুল জাব্বার জিহাদী (৬০) নামে এক মাদরাসা অধ্যক্ষকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার সকালে নগরীর ছোটবনগ্রাম এলাকার জামিয়া রহমানিয়া মাদরাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার আবদুল জাব্বার জিহাদী নগরীর ছোটবনগ্রাম ক্লাবের মোড় এলাকার মৃত ফকির মাহমুদের ছেলে। এর আগে যৌন নিপীড়নের শিকার ওই ছাত্রের (১৪) বাবা নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। বিকেলে অধ্যক্ষকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমান উল্লাহ বলেন, বিকেলে রাজশাহীর মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট আদালত -৩ এ ওই মাদরাসা ছাত্র জবানবন্দি দেয়। সে বলেছে, মারধরের ভয় দেখিয়ে অধ্যক্ষ তার ওপর যৌন নিপীড়ন চালাতেন। বিকেলে অধ্যক্ষ জিহাদীকেও আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

এদিকে মামলাটি তদন্ত করছেন বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) গোলাম মোস্তফা। তিনি জানান, নির্যাতনের শিকার ওই কিশোর মাদরাসাটির হেফজ বিভাগের আবাসিক ছাত্র। অনেক দিন ধরেই অধ্যক্ষ তার ওপর যৌন নিপীড়ন চালাতেন। সর্বশেষ গত ১৩ অক্টোবর রাতেও তার উপর নির্যাতন চালান অধ্যক্ষ। এতে অসুস্থ হয়ে ওই ছাত্র বাড়ি চলে যায়। লোক লজ্জার ভয়ে বিষয়টি গোপনও রাখে সে। কয়েকদিন পরই শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হলে তাকে মাদরাসায় নিয়ে যেতে চান বাবা। কিন্তু তাতে আপত্তি জানায় ওই ছাত্র। এরপরই ওই ছাত্র অধ্যক্ষের অপকর্ম নিয়ে মুখ খোলে। বুধবার সকালে থানায় এসে মামলা দায়ের করেন ওই ছাত্রের বাবা। এর আগেও ওই অধক্ষ্যের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ ছিল।

তবে এ অভিযোগোর বিষয়ে জানতে চাইলে তা অস্বীকার করেন অধ্যক্ষ আবদুল জাব্বার জিহাদী।

খবরঃ জাগোনিউজ২৪

6 thoughts on “রাজশাহীতে ছাত্রকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে মাদরাসা অধ্যক্ষ গ্রেফতার

Comments are closed.