রাজশাহীতে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের স্মরণ

রাজশাহী

রাজশাহীতে যথাযথ মর্যাদায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত হচ্ছে। একাত্তরের ১৪ ডিসেম্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী এবং তাদের দোষরদের হাতে শহীদ হওয়া জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের গভীর শোক আর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছেন রাজশাহীর মানুষ। দিবসটি উপলক্ষে রাজশাহীতে নানা কর্মসূচি পালিত হচ্ছে।

শনিবার সকালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় বধ্যভূমির স্মৃতিস্তম্ভে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। সেখানেও দোয়া করা হয়। পরে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন নেতৃবৃন্দ। এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক এমপি মেরাজ উদ্দিন মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক সাবেক কাজী আবদুল ওয়াদুদ দারাসহ আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) বিনম্র শ্রদ্ধায় জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণ করা হয়েছে। শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে শনিবার ভোরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রধান ভবনে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতভাবে উত্তোলন করা হয়।

এদিন সকাল সাড়ে ৭টায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপাচার্য ভবন থেকে একটি প্রভাতফেরি বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ মিনারে ও প্রশাসন ভবনের পশ্চিম চত্বরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিফলকে পুস্পস্তবক অর্পণ করে। সেখানে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

এছাড়া রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান নানা কর্মসূচি পালনের মধ্য দিয়ে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালন করছে। গভীর শোক আর শ্রদ্ধায় জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের স্মরণ করছেন সবাই।

এদিকে, দিবসের প্রথম প্রহরে রাজশাহী মহানগরীর ভুবনমোহন পার্ক শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণ করেন নগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। এ সময় শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। পরে শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় বিশেষ দোয়া করা হয়। এ সময় মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আলী কামাল, যুগ্ম সম্পাদক নাঈমুল হুদা রানা, সাংগঠনিক সম্পাদক আসলাম সরকার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ দৈনিক সানশাইন