রাজশাহীতে ট্রেনে কাটা পড়ে প্রাণ গেলো দু’জনের

রাজশাহী

রাজশাহীতে পৃথক স্থানে ট্রেনে কাটা পড়ে দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে একজন অটোরিকশা চালক ও একজন কলেজ ছাত্র রয়েছেন। নিহতদের মরদেহে আইনি প্রক্রিয়া শেষে পারিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২ মে) দুপুরে ও বুধবার (১ মে) দিনগত রাতে মহানগরের বর্ণালির মোড় ও পুঠিয়া উপজেলার বেলপুকুর রেলক্রসিংয়ে এ ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট থানায় পৃথকভাবে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে রাজশাহী গভর্নমেন্ট রেলওয়ে পুলিশ (জিআরপি) থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাঈদ ইকবাল জানান, বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশন থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের উদ্দেশ্যে একটি মেইল ট্রেন ছেড়ে যায়। ট্রেনটি মহানগরের বর্ণালির মোড় রেলক্রসিং পার হওয়ার সময় আশিক (২০) নামের এক অটোরিকশা চালক কাটা পড়েন। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

পরে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে থানায় খবর দেন। তারা জানান, ট্রেনের ছাদে করে যাওয়ার সময় অসাবধানতাবশত রেললাইনের ওপর পরে যায় আশিক। তিনি মহানগরের মহিষবাথান এলাকায় লাল চাঁদের ছেলে।

তিনি আরও জানান, মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যাওয়ার পর খবর শুনে ৫নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামরুজ্জামান কামরু থানায় আসেন। এ সময় ময়নাতদন্ত ছাড়াই নিহতের মরদেহ হস্তান্তরের দাবি জানান। বর্তমানে আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহটি পরিবারের কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে। তবে এ ঘটনায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হবে বলেও জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।

এর আগে বুধবার দিনগত রাতে সাড়ে ১২টার দিকে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বেলপুকুর রেলক্রসিংয়ের অদূরে ট্রেনে কাটা পড়ে শাকিব (১৭) নামের এক কলেজছাত্রের মৃত্যু হয়।

সাকিব মহানগরের কাটাখালি থানার সুচারণ এলাকার হাবিবুর রহমানের ছেলে। ময়নাতদন্ত শেষে তার মরদেহ বৃহস্পতিবার দুপুরে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় রাজপাড়া থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

মহানগরের রাজপাড়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সেতু পারভীন জানান, বুধবার দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে বেলপুকুর রেলক্রসিংয়ের অদূরে ট্রেনে কাটা পড়েন শাকিব। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজ২৪