রাজশাহীতে পদ্মার ভাঙন ঝুঁকিতে ৪০ বছরের পুরাতন মসজিদ

বাঘা রাজশাহী

আগ্রাসী পদ্মার ভাঙনের ঝুঁকিতে রয়েছে রাজশাহীর বাঘা উপজেলার চকরাজাপুর ইউনিয়নের কালিদাসখালী জামে মসজিদ। প্রায় চার দশক ধরে মসজিদটিতে নামাজ আদায় করে আসছিলেন স্থানীয়রা।

জানা গেছে, উজান হতে নেমে আসা ঢলের কারণে পদ্মায় তীব্র স্রোত বয়ে যাচ্ছে। এর ফলে প্রতিনিয়তই নতুন নতুন এলাকা ভাঙছে। পদ্মার খরস্রোতে তীরবর্তী চকরাজাপুর ইউনিয়নের কালিদাসখালী, লক্ষ্মীনগরসহ পাঁচ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে ইতোমধ্যে ভাঙন দেখা দিয়েছে। ভাঙনের মুখে দিশেহারা তীরবর্তী মানুষ এখন বাড়িঘর অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন।

এদিকে, নদী ভাঙনে কালিদাসখালী জামে মসজিদের পেছনের মাটি সরে যাওয়ায় এটি ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থানে রয়েছে। ফলে স্থানীয়রা মসজিদটি অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন।

চকরাজাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল আজম বাংলানিউজকে বলেন, পদ্মা নদীতে নতুন করে ভাঙন দেখা দিয়েছে। ফলে কৃষি জমি, ঘর-বাড়ি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকে জানানো হয়েছে। কালিদাসখালী মসজিদটিও ভাঙনের কবলে পড়েছে। সেটা এখন অন্য জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

রাজশাহীর বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা জানান, পদ্মায় নতুন করে ভাঙন দেখা দিয়েছে। আগে থেকেই ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার সকলকে নিরাপদে সরে যাওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজ