রাজশাহীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৬

রাজশাহী রাজশাহী বিভাগ

রাজশাহীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ছয়জন নিহত হয়েছেন। এসব ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ১২ জন।

বুধবার (১৫ জুলাই) মতিহার থানার হরিয়ানের খড়খড়ি কুখন্ডি, পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বর ও মোহনপুরের কেশরহাট এলাকায় এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবীর বাংলানিউজকে জানান, বুধবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে খড়খড়ি এলাকার কুখন্ডি বাইপাসে নওদাপাড়াগামী একটি ভ্যানকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয় একটি ট্রাক। এতে জয়নাল নামে এক ব্যক্তি ঘটনাস্থলেই নিহত হন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন চারজন।

এদিকে, বুধবার সকাল সাড়ে ৭টায় রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বরে ট্রাক-পিকআপ মুখোমুখি সংঘর্ষে পিকআপের দু’যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও তিনজন।

নিহত দু’জন হলেন-নাচোল উপজেলা সদরের হোসেন আলীর ছেলে নাজমুল হক (৪৫) ও নাচোল উপজেলার ইসলামপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে মিজানুর রহমান (৪০)।

বানেশ্বর হাইওয়ে পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ ফজলুল হক বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, সকালে বানেশ্বরে ট্রাক-পিকআপ মুখোমুখি সংঘর্ষের পর গুরুতর আহত তিনজনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে নাজমুল ও মিজানুর নামে দু’জন মারা যান।

অপরদিকে, বুধবার দুপুর ১২টার দিকে মোহনপুরের কেশরহাট এলাকায় ভটভটি ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে তিনজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় অন্তত পাঁচজন আহত হয়েছেন।

মোহনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল হালিম এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন-রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার মহব্বতপুর গ্রামের ইব্রাহীম হোসেনের ছেলে ইয়াকুব আলী সবর (৪৫), মহনপুর উপজেলার কেশরহাট ডিগ্রি কলেজের সহকারি অধ্যাপক জাহাঙ্গীর হোসেন (৪০) এবং মোহনপুর উপজেলার আমড়াইল গ্রামের শমসের হোসেনের ছেলে আকবর হোসেন।

আহতদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে প্রাথমিকভাবে তাদের পরিচয় জানা যায়নি।