রাজশাহীতে “বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট” এর অ্যাক্টিভেশন ক্যাম্পেইন আয়োজিত

তথ্য প্রযুক্তি রাজশাহী রাজশাহী বিভাগ

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী ২০২০ সালে দেশব্যাপী উদযাপিত হচ্ছে।
বাংলাদেশ সরকার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আওতায় বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল এর অধীনে “উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমী প্রতিষ্ঠাকরণ প্রকল্প (iDEA)” থেকে নানামুখী উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে “বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্রান্ট” সংক্ষেপে “BIG” আয়োজন।
“BIG” এর আওতায় “iDEA” প্রকল্প তরুণ উদ্যোক্তা অর্থাৎ স্টার্টআপদের উদ্ভাবনী চিন্তা শক্তি কে উৎসাহিত করে স্টার্টআপ ইকোসিস্তেম গড়ে তোলার লক্ষ্যে ২০২০-২১ সালে মুজিব শতবর্ষে ১০০ স্টার্টআপকে গ্রান্ট প্রদান করার পরিকল্পনা গ্রহণ করে।
রাজশাহী বিভাগে আজ ২ ডিসেম্বর ২০২০, বুধবার “বিগ ২০২০” এর একটি অ্যাক্টিভেশন ক্যাম্পেইন রাজশাহীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্কে যথাযথ সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইসিটি বিভাগের iDEA প্রকল্পের উপ-প্রকল্প পরিচালক (উপসচিব) কাজী হোসনে আরা, রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট)- এর তড়িৎ ও কম্পিউটার কৌশল বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ডঃ মোঃ শামিম আনোয়ার এবং সহকারী অধ্যাপক তাসনিম বিনতে শওকত। উক্ত অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন মোঃ কামরুজ্জামান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি), জেলা প্রশাসন, রাজশাহী।
বাংলাদেশের সরকারি-বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, স্টার্টআপ প্রতিষ্ঠান, উদ্ভাবক, বিভিন্ন দেশের হাইকমিশন ও এম্বাসি, স্টার্টআপের সাথে সংশ্লিষ্ট দেশি-বিদেশি কমিউনিটি ও ক্লাব, ট্রেড অ্যাসোসিয়েশনসহ শতাধিক প্রতিনিধিরা অংশ গ্রহণ করেছে।
“বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্রান্ট ২০২০” এ আগ্রহীগণ কে নিবন্ধন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে অংশগ্রহণ করতে হবে। দক্ষ ও অভিজ্ঞদের সমন্বয়ে গঠিত বিচারক কমিটির মাধ্যমে প্রাপ্ত আবেদনের মধ্য থেকে প্রাথমিকভাবে ২০০ টি উদ্ভাবনী স্টার্টআপ বাছাই করা হবে এবং পরবর্তীতে ৬৫ টি স্টার্টআপকে নির্বাচন করা হবে।
নির্বাচিত স্টার্টআপদের নিয়ে ৪ দিনব্যাপী বুট ক্যাম্পের আয়োজন করা হবে।
এই বুট ক্যাম্পে স্টার্টআপদের নিয়ে ওয়ার্কশপ, মেন্টরিং, পিচিং ইত্যাদি বিষয় সমুহ অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।
বুটক্যাম্প এর সেরা ৬৫টি স্টার্টআপকে নিয়ে আয়োজন করা হবে টেলিভিশন রিয়েলিটি শো। রিয়েলিটি শো তে মোট ১৩ টি পর্ব থাকবে এবং প্রতিটি পর্ব থেকে দুটি করে মোট ২৬ টি স্টার্টআপ কে নির্বাচন করা হবে চূড়ান্ত পর্বের এর জন্য।
নির্বাচিত ২৬টি স্টার্টআপ কে iDEA প্রকল্পের পক্ষ থেকে ১০ লক্ষ টাকা “গ্রান্ট” প্রদানের মাধ্যমে সম্মাননা দেওয়া হবে।
আন্তর্জাতিক বাজারে “মেইড ইন বাংলাদেশ” পণ্যের প্রচার প্রসারে কৌশল হিসেবে উন্নত বিশ্বের সাথে বাংলাদেশের একটি অংশ “ইন্টারন্যাশনাল রোড শো” আয়োজিত হবে যেখানে আমেরিকা,কানাডা, মালয়েশিয়া,চায়না,ভারত,জাপান,ইটালিসহ বিভিন্ন দেশকে অন্তর্ভুক্ত করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।
আন্তর্জাতিক পর্যায়ে স্টার্টআপ এর মধ্য থেকে নির্বাচনের মাধ্যমে ১০টি স্টার্টআপকে নির্বাচন করা হবে এবং iDEA প্রকল্পের তত্ত্বাবধায়নে ১০ লক্ষ টাকা “গ্রান্ট” প্রদানের মাধ্যমে সম্মাননা দেওয়া হবে।
নির্বাচিত ১০টি স্টার্টআপকে মনোনীত করা হবে চূড়ান্ত পর্বের জন্য।
রিয়েলিটি শো এবং আন্তর্জাতিক রোড শো থেকে প্রাপ্ত মোট ৩৬ টি স্টার্টআপকে নিয়ে আয়োজিত হবে “BIG” এর চূড়ান্ত পর্ব।
“বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্ট ২০২০” এর পুরস্কার হিসেবে সেরা স্টার্টআপকে দেওয়া হবে বিশেষ সম্মাননা এবং গ্র্যান্ট হিসেবে ১ লক্ষ ইউএস ডলার।
“BIG” আয়োজনটি পরবর্তী বছরগুলোতে ও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ কর্তৃক ধারাবাহিকভাবে আয়োজনের পরিকল্পনা রয়েছে।