রাজশাহীতে বিদ্যুৎ কর্মকর্তাকে পেটালেন ছাত্রলীগ নেতা

বাগমারা রাজশাহী

রাজশাহীর বাগমারায় ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের পিটুনিতে আহত হয়েছেন নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ১-এর বাগমারা আঞ্চলিক কার্যালয়ের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) ফসিউল আলম জাহাঙ্গীর।

গতকাল সোমবার বিকেলে বাগমারা বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্সের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গভীর রাতে ডিজিএম বাদী হয়ে বাগমারা থানায় মামলা করেন। মামলা দায়েরের পর ভবানীগঞ্জ পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি নাহিদ ইসলামের বাবা রফাতুল্লাহ প্রামাণিককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সোমবার বিকেলে ডিজিএম ফসিউল আলম জাহাঙ্গীর অফিস শেষ করে কর্মচারী তুহিন ইসলামকে সঙ্গে নিয়ে বাসায় ফিরছিলেন। বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্সের সামনে দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় ভবানীগঞ্জ পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি নাহিদ ইসলাম তাঁর সঙ্গীদের নিয়ে ডিজিএমের ওপর হামলা চালান।

হামলাকারীরা লাঠি ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে ডিজিএমকে আহত করেন। বাঁচার জন্য চিৎকার করতে থাকলে বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্স সংলগ্ন কার্যালয় থেকে সহকর্মী ও পথচারীরা উদ্ধার করে তাঁকে বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

পরে রাতেই ডিজিএম বাদী হয়ে ভবানীগঞ্জ পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি নাহিদ ইসলাম ও তাঁর বাবা রফাতুল্লাহ প্রামাণিকসহ অজ্ঞাত ১০-১২ জনকে আসামি করে মামলা করেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ছাত্রলীগ নেতা নাহিদ ইসলাম এনটিভি অনলাইনের কাছে অভিযোগ করেন, ‘ডিজিএম ফসিউল আলম জাহাঙ্গীর বিদ্যুতের সংযোগসহ একটি মিটারের জন্য আমার কাছ থেকে ২১ হাজার টাকা ঘুষ নিয়েছেন। কিন্তু আজ দেব, কাল দেব বলে হয়রানি করে আসছেন।

সোমবার কার্যালয়ে গিয়ে ওই টাকা ফেরত চাইলে ডিজিএম আমাকে অপমান করে বের করে দেন। এরপরের ঘটনা সম্পর্কে আমি কিছু জানি না’ বলে দাবি করেন এ ছাত্রলীগ নেতা।

ছাত্রলীগ নেতার দাবি সম্পর্কে ডিজিএম ফসিউল আলাম জাহাঙ্গীরের কাছে জানতে চাইলে তিনি এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মতিয়ার রহমান এনটিভি অনলাইনকে জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। এ ঘটনায় ডিজিএম মামলা করলে ছাত্রলীগ নেতা নাহিদ ইসলামের বাবাকে গ্রেপ্তার করা হয়। অভিযুক্ত অন্যদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এনটিভি

7 thoughts on “রাজশাহীতে বিদ্যুৎ কর্মকর্তাকে পেটালেন ছাত্রলীগ নেতা

Comments are closed.