রাজশাহীতে বিদ্যুৎ বিভ্রাটে অতিষ্ঠ জনজীবন

রাজশাহী

রাজশাহীতে গরমের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে বিদ্যুৎ বিভ্রাট। বর্ষাকাল শুরু হলেও রাজশাহীতে বৃষ্টির দেখা নেই। তাই কমছে না তাপমাত্রা। এতে নাভিশ্বাস উঠছে মানুষের। ফলে মানুষের দুর্ভোগ পৌঁছেছে অসহনীয় পর্যায়ে।

রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের সিনিয়র পর্যবেক্ষক রাজীব খান জানান, রাজশাহীতে প্রতিদিনই তাপমাত্রা বাড়ছে। আষাঢ়ের শুরুর দিন গত শনিবার পদ্মা পাড়ের এ শহরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। পরের দিন রোববার তাপমাত্রা আরও বেড়ে ৩৮ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসে গিয়ে ঠেকে।

বর্ষার এই তাপদাহে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন রাজশাহীর মানুষ। তাই প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘরের বাইরে বের হচ্ছেন না। কিন্তু সূর্যের প্রচণ্ড তাপে সবচেয়ে বেকায়দায় পড়েছেন ঘরের বাইরে খেটে খাওয়া মানুষ। আবার বিদ্যুতের বিভ্রাটের কারণে কখনও কখনও ঘরেও টেকা মুশকিল হয়ে পড়েছে। স্থবিরতা দেখা দিয়েছে কাজে-কর্মে।

নগরীর তালাইমারী এলাকায় একটি মেসে থাকেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী কানিজ ফাতেমা। তিনি বলেন, গত কয়েকদিন ধরে তাদের এলাকায় লোডশেডিং বেড়েছে। এতে তিনি সীমাহীন দুর্ভোগের মধ্যে পড়েছেন। অভিযোগ দিতে বিদ্যুৎ অফিসে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি টেলিফোন নম্বর বন্ধ পাচ্ছেন।

যোগাযোগ করা হলে রাজশাহী নেসকোর বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-১ এর ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী প্রকৌশলী বলেন, রাজশাহীতে কোনো লোডশেডিং নেই। তারা চাহিদা অনুযায়ীই জাতীয় গ্রিড থেকে বিদ্যুৎ পাচ্ছেন। তবে বৈদ্যুতিক লাইনের সমস্যার কারণে কোথাও কোথাও বিদ্যুৎ সরবরাহে বিভ্রাট ঘটছে।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ Daily Sunshine