রাজশাহীতে বিদ্রোহী প্রার্থী মোহাম্মদ আলী নির্বাচিত

রাজশাহী

রাজশাহীতে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মোহাম্মদ আলী সরকার ৭শ’ ৪২ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

তার নিকটতম প্রার্থী আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মাহবুব জামান ভুলু পেয়েছেন ৪শ’ ১৭ ভোট।

বুধবার (২৮ ডিসেম্বর) বিকেলে জেলা রিটার্নিং অফিসার কাজী আশরাফ উদ্দীন এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

এর আগে সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবে একটানা ভোটগ্রহণ হয়। রাজশাহীতে ভোট পড়েছে ৯৯ শতাংশ। রাজশাহী সিটি করপোরেশন ও জেলার নয়টি উপজেলার ১৪টি পৌরসভা এবং ৭১টি ইউনিয়নের ১৫টি কেন্দ্রে এ ভোটগ্রহণ করা হয়।

জেলার সহকারী রিটার্নিং অফিসার শহিদুল ইসলাম বলেন, ভোটগ্রহণ চলাকালে কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

ভোটার সংখ্যা কম হওয়ায় গণনা শেষে দ্রুতই ফলাফল ঘোষণা করা হয় বলে জানান তিনি।

এদিকে, প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত জেলা পরিষদ নির্বাচনে রাজশাহীতে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন দু’জন প্রার্থী। এরা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মাহবুব জামান ভুলু (তালগাছ প্রতীক) এবং একই দলের বিদ্রোহী প্রার্থী মোহাম্মদ আলী সরকার (আনারস প্রতীক)।

এক হাজার ১শ’ ৭১ জন জনপ্রতিনিধি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচনে সকাল থেকে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

এরমধ্যে পুরুষ ভোটারের সংখ্যা ছিল ৮শ’ ৯৬ জন। আর নারী ভোটার ২শ’ ৭৫ জন। প্রতিটি ওয়ার্ডের জন্য একটি করে মোট ১৫টি কেন্দ্রের ৩০টি বুথে এই ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

নির্বাচনে রাজশাহীতে চেয়ারম্যান পদ ছাড়াও সাধারণ সদস্য পদে ৩২ জন ও সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১২ জন প্রার্থী এবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ভোটের পর সাধারণ সদস্য পদ নিয়ে ১৫ জন ও সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্য পদ নিয়ে পাঁচজন যাবেন জেলা পরিষদে।

তবে এরই মধ্যে সংরক্ষিত নারী আসনের একজন প্রার্থী ও সাধারণ সদস্য পদের চারজন প্রার্থী বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। ভোটারদের ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন তাই আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে ছিল চেয়ারম্যান পদের প্রার্থীরা।

খবরঃ বাংলানিউজ

1 thought on “রাজশাহীতে বিদ্রোহী প্রার্থী মোহাম্মদ আলী নির্বাচিত

Comments are closed.