রাজশাহীতে বোনকে বাঁচাতে প্রাণ গেলো কিশোরের

রাজশাহী

রাজশাহীতে ছোট বোনকে বাঁচাতে গিয়ে বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে নিহত হয়েছেন মেহেদী হাসান(১৬) নামে এক কিশোর। বৃহস্পতিবার দুপুরে মহানগরীর দড়িখরবোনা মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মেহেদী হাসান নগরীর আলীগঞ্জ এলাকার তাজমুলের ছেলে ও রাজশাহী কোর্ট একাডেমী স্কুলের এসএসসি পরীক্ষার্থী।
মেহেদী হাসানের খালা নাজমা খাতুন জানান, পরিবারের সবাই মিলে চাঁপাইনবাবগঞ্জের রহনপুরে গ্রামের বাড়িতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে রেল স্টেশনে যাওয়ার জন্য রিকশাযোগে যাচ্ছিলেন। পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী রজব আলী জানান, মেহেদী হাসান তার ৪ থেকে ৫ বছরের প্রতিবদ্ধি বোন বর্ষাকে নিয়ে রিকশাযোগে স্টেশনের দিকে যাচ্ছিলেন। দড়িখরবোনা মোড়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে রাজশাহী আসা একটি বাস পাশ কাটিয়ে যাওয়ার সময় ধাক্কা দেয়। এতে মেহেদী ও বর্ষ রিকশা থেকে পড়ে যায়। বর্ষা বাসের তলে চলে গেলে মেহেদী বোনকে বাঁচাতে টেনে নিজের বুকে নেয়। ওই সময় বাসের পেছনের চাকা মেহেদী হাসানের পায়ের উপর দিয়ে চলে যায়। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। স্থানীয় লোকজন বাসটিকে আটকের চেষ্টা করলেও চালক বাসটি নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ(রামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কিছুক্ষণ পরেই তার মৃত্যু হয়।

বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) শাহাদাত হোসেন জানান, ঘটনাটি তিনি শুনেছেন। তবে এবিষয়ে থানায় কেউ অভিযোগ দেয়নি।

খবরঃ দৈনিক সানশাইন

6 thoughts on “রাজশাহীতে বোনকে বাঁচাতে প্রাণ গেলো কিশোরের

Comments are closed.