রাজশাহীতে ভাগ্নিকে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় খালার দুই হাত ভেঙ্গে দিল বখাটেরা!

রাজশাহী

উত্যক্ষের প্রতিবাদ রাজশাহী মহানগরীতে খালার দুই হাত ভেঙ্গে দিয়েছে স্থানীয় বখাটেরা। গত শুক্রবার রাতে নগরীর মতিহার থানাধীন কাটাখালির শ্যামপুর মোল্লাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আহত ওই নারীর নাম জয়নব বেগম (৫৩)। তিনি নগরীর শ্যামপুর মধ্যপাড়া এলাকার মৃত আলতাফ হোসেনের স্ত্রী। তাকে বর্তমানে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের এক নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এ ঘটনায় শনিবার বিকাল ৫টার দিকে ভুক্তভোগীর ভাই আব্দুস সালাম বাদি হয়ে নগরীর মতিহার থানায় একটি অভিযোগপত্র দায়ের করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার বিকেলে আহত জয়নব বেগম তার ভাগ্নিকে (বোনের মেয়ে) নিয়ে নগরীর শ্যামপুর ঠান্ডাবাড়ি এলাকায় এক ডাক্তারের কাছে চিকিৎসা নিতে যায়। চিকিৎসা শেষে রাত ৮টা দিকে বাড়ি ফেরার পথে শ্যামপুরের মোল্লাপাড়া এলাকায় পৌঁছালে ওই এলাকার আব্দুর রাজ্জাকের বখাটে ছেলে সজিব (২৪) সহ ৩-৪ জন জয়নব বেগমের সামনেই তার ভাগ্নিকে বিভিন্ন অশ্লীল ভাষায় গালাগাল এবং ইভটিজিং করতে থাকে।

এই উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বখাটেরা জয়নবকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এতে তার দুই হাতই ভেঙ্গে যায়। পরে স্থানীয়রা রাতেই উদ্ধার করে তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ১ নং ওয়ার্ডে ভর্তি করান।

আহত জয়নব বেগমের ভাই আব্দুস সালাম জানান, আমার বোনের সামনেই আমার আরেক বোনের মেয়েকে বখাটেরা অশ্লীল ভাষায় গালাগাল ও ইভটিজিং করে।

এর প্রতিবাদ করায় তারা বোনকে লাঠিশোটা দিয়ে পিটিয়ে দুই হাত ভেঙ্গে দেয়। শনিবার দুপুর পর্যন্ত জয়নব অচেতন অবস্থায় ছিল। দুপুরের পরে তার জ্ঞান ফিরেছে বলে জানান তিনি।

মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী হাসান জানান, এ ঘটনায় শনিবার বিকালে আহত জয়নবের ভাই আব্দুস সালাম একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান ওসি।

খবরঃ ডেইলি সানশাইন

2 thoughts on “রাজশাহীতে ভাগ্নিকে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় খালার দুই হাত ভেঙ্গে দিল বখাটেরা!

Comments are closed.