রাজশাহীতে মায়ের কোলে ফিরলো চুরি যাওয়া সেই নবজাতক

রাজশাহী

অবশেষে আদালত ঘুরে মায়ের কোলে ফিরলো রাজশাহী মহানগরীর নওদাপাড়া এলাকার আরবান স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে চুরি যাওয়া সেই নবজাতক শিশু।

শনিবার (২৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় মহানগরীর শাহ মখদুম থানা পুলিশ আইনি প্রক্রিয়া শেষে ওই শিশুকে তার মা মুক্তি বেগমের কোলে তুলে দেন।

জন্ম দেওয়ার নয়দিন পর ছেলেকে কোলে পেয়ে মাতৃস্নেহে শিশুটিকে জড়িয়ে ধরে আনন্দ অশ্রুতে ভাসেন মুক্তি। এ সময় থানার পুলিশ সদস্যদের মধ্যেও আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়। অনেক পুলিশ সদস্যের চোখই ছলছল করে ওঠে।

এর আগে বিকেলে রাজশাহীর মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (৩) আদালতে হাজির করা হয় শুক্রবার (২৭ জানুয়ারি) উদ্ধার হওয়া ওই নবজাতক শিশুকে। পরে আদালতের বিচারক জাহিদুল ইসলাম শিশুটিকে তার মা-বাবার কাছে হস্তান্তরের জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শাহ মখদুম থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মতিউর রহমান জানান, এ সময় গ্রেফতার ওই নারীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানানো হয়। তবে এর শুনানি হয়নি। আগামীকাল রোববার (২৯ জানুয়ারি) রিমান্ডের শুনানি অনুষ্ঠিত হবে বলেও জানান তিনি।

পরে নবজাতক চুরির দায়ে গ্রেফতার নারী শাহীন আক্তার শুভ্রাকে আদালতের নির্দেশে কারাগারে পাঠানো হয়। এর আগে সকালে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়।

মহানগরীর শাহ মখদুম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিল্লুর রহমান জানান, গর্ভধারণের বিষয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) নিয়ে গ্রেফতার শাহীন আক্তারের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়।

রামেক ওসিসির ইনচার্জ ডা. আনোয়ারা বেগম স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর জানান, গ্রেফতার নারীর গর্ভে এ নবজাতক শিশু জন্ম নেয়নি। পরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার বিরুদ্ধে পাঁচদিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে আদালতে পাঠানো হয়।

চুরি যাওয়ার আটদিন পর শুক্রবার দুপুরে মহানগরীর টিকাপাড়া বাশার রোডের ৫০৭ ‘সপ্তষি’ নামের একটি বাড়ি থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়।

এই ঘটনায় শাহীন আক্তার ওরফে শুভ্রা (৩৫) নামের ওই নারীকেও আটক করা হয়। তিনি রাজশাহীর নর্থবেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির আলুপট্টি ক্যাম্পাসের সহকারী পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ও রাজশাহীর বাগমারা উপজেলায় ডা. আক্তারুজ্জামান স্ত্রী। এ দম্পতি বাশার রোডের ওই বাড়িতে ভাড়া থাকেন।

রাজশাহী মহানগরীর নওদাপাড়া এলাকার আরবান স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে গত ১৯ জানুয়ারি বিকেলে ওই নবজাতক চুরির ঘটনা ঘটে। রাজশাহীর পবা উপজেলার চর শ্যামপুর এলাকার দিনমজুর নাসির উদ্দিন ওই নবজাতক শিশুটির বাবা।

শিশুর মা মুক্তি বেগম শনিবার বিকেলে ছাড়পত্র নিয়ে নওদাপাড়ার আরবান স্বাস্থ্যকেন্দ্র ছাড়েন। পরে সন্ধ্যায় থানা থেকে সন্তানকে নিয়ে বাড়ি ফিরে যান।

খবরঃ বাংলানিউজ