রাজশাহীতে মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে সৎ বাবার যাবজ্জীবন

পুঠিয়া রাজশাহী

রাজশাহীতে মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে সৎ বাবা নবাব আলী লোবারকে (৩৭) যাবজ্জীবন সাজা দিয়েছে আদালত। বুধবার দুপুরে রাজশাহীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক মনসুর আলম জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় ঘোষণা করেন। আদালত একই সঙ্গে নবাব আলীকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ড দেন আদালত।

দম্পতি নবাব আলী রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার চন্দনমাড়িয়া এলাকার আশরাফ আলী। রায় ঘোষণাকালে আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন তিনি। পরে তাকে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে নেয়া হয়। ঘটনা জেনেও গোপন করার অভিযোগে আসামি ছিলেন ওই কিশোরীর নানি জুলেখা বেওয়া। তবে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে খালাস দেন আদালত।

রাজশাহী জেলা জজ আদালতের পরিদর্শক খুরশিদা বানু কনা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মামলার বাদী ১৪ বছরের কিশোরী। সম্পর্কে সে নবাব আলীর সৎ মেয়ে। ওই কিশোরীর বাবার মৃত্যুর পর নবাব আলীকে বিয়ে করেন তার মা। ২০১১ সালে নবাব দ্বিতীয় স্ত্রী ও আপন মেয়েকে ঘুমের ওষুধ সেবনে ঘুম পাড়িয়ে সৎ মেয়েকে ধর্ষণ করেন।

ঘটনাটি পরে ওই কিশোরী তার নানিকে জানায়। তবে মেয়ের সংসার ভেঙে যাওয়ার ভয়ে তিনি বিষয়টি গোপন রাখেন। এ ঘটনার সাত মাস পর ২০১২ সালের ৪ এপ্রিল নবাব আবারও তার স্ত্রীকে জুসের সঙ্গে মিশিয়ে ঘুমের ওষুধ সেবন করায়। এরপর ওই কিশোরীকে আবারো ধর্ষণ করেন।

এ ঘটনায় ওই বছরের ১৯ জুলাই ওই কিশোরী সৎ বাবার বিরুদ্ধে থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করে। ঘটনা গোপন করার চেষ্টায় তার নানিকেও আসামি করা হয় ওই মামলায়।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন আইনজীবী ইসমত আরা। আর আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী খায়রুন্নাহার কাজল।

খবরটি প্রকাশিত হয়েছেঃ ডেইলি সানশাইন

রাজশাহী এক্সপ্রেস রাজশাহী বিভাগ কেন্দ্রিক সর্বপ্রথম ইন্টারনেট মিডিয়া। অনলাইনে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা রাজশাহী সম্পর্কিত সব তথ্য গুলোকে সহজে জানার জন্য একত্রিত করে প্রকাশ করাই আমাদের লক্ষ্য। এখানে সংগৃহীত তথ্যগুলোর স্বত্ব (copyright) সম্পূর্ণভাবে সোর্স সাইটের এবং আমাদের সংগৃহীত প্রতিটা এক্সপ্রেসে সোর্স সাইটের রেফারেন্স লিংক উদ্ধৃত আছে। এ বিষয়ে আমাদের কোনো দায়বদ্ধতা নেই।

1 thought on “রাজশাহীতে মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে সৎ বাবার যাবজ্জীবন

Comments are closed.