রাজশাহীতে যুবকের জবাই করা লাশ উদ্ধার

রাজশাহী

নগরীর কাশিয়াডাঙা এলাকার শাহাবুল ইসলাম (৩২) নামে এক ব্যবসায়ীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পবা থানা পুলিশ। গতকাল শুক্রবার সকালে উপজেলার হুজরীপাড়া ইউনিয়নের কৈকুড়ি এলাকার রাস্তার পাশ থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় নিহত শাহাবুলের মা বাদী হয়ে ৪জনকে আসামি করে পবা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
পবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পরিমল কুমার চক্রবর্তী শাহাবুলের পরিবার ও বন্ধুদের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, নিহত শাহাবুল ইসলাম নগরীর উপকণ্ঠ রাজপাড়া থানাধীন কাশিয়াডাঙার ফেত্তাপাড়া এলাকার নুর্বল ইসলামের ছেলে। শাহাবুল মাছ চাষ, জমি কেনাবেচার ব্যবসা ছাড়াও ক্রিকেটসহ বিভিন্ন খেলা নিয়ে বাজী (বেটিং) খেলেন। এনিয়ে তার বন্ধুদের সাথে দ্বন্দ্বও রয়েছে। এই দ্বন্দ্বের জেরে সম্প্রতি রাজপাড়া থানায় শাহাবুলের বির্বদ্ধে একটি অভিযোগ হয়। ওই অভিযোগ মিমাংসার কথা বলে গত বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে নগরীর বহরমপুর মোড় থেকে শাহাবুলকে একটি সাদা কারে করে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। শাহাবুলের ফিরে আশার অপেৰায় বহরমপুরে তার এক বন্ধু গভীর রাত অবধি অপেৰা করলেও সে আর ফিরে আসেনি।

গতকাল শুক্রবার সকালে পবার কৈকুড়ি এলাকার পাকা রাস্তার পাশে স্থানীয় লোকজন শাহাবুলের লাশ পড়ে থাকতে দেখে পবা থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে সেখান থেকে শাহাবুলের জবাই করা লাশ উদ্ধার করে। নিহত শাহাবুলের টি-শার্টের পকেটে পাঁচ হাজার এবং জিন্সের প্যান্টের পকেটে তিন হাজার টাকা পাওয়া গেছে। লাশের মুখ গামছা দিয়ে বাঁধা ছিল। গলাকেটে তার মৃত্যু নিশ্চিত করা হলেও পেটে ধারালো অস্ত্রের আঘাত পাওয়া গেছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে রয়েছে।

ওসি আরো বলেন, যেখান থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে সেখানে কোন রক্ত পড়ে থাকতে দেখা যায়নি। এ থেকে ধারণা করা হচ্ছে অন্য কোথাও হত্যার পর গাড়িতে করে এনে লাশ সেখানে ফেলে যাওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় শাহাবুলের মা মালেকা বিবি বাদী হয়ে পবা থানায় ৪ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা পবা থানার ওসি (তদন্ত) হাসমত আলী জানান, পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। আসামিদের গ্রেফতারে জোর তৎপরতা চলছে। তাদেরকে ধরতে পারলেই হত্যার আসল রহস্য বেরিয়ে আসবে।

খবরঃ দৈনিক সোনালী সংবাদ

1 thought on “রাজশাহীতে যুবকের জবাই করা লাশ উদ্ধার

Comments are closed.