রাজশাহীতে লবনের দাম বাড়ছে হু হু করে

রাজশাহী

ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে ব্যবসায়ীদের কারসাজিতে লবনের দাম বাড়ছে হু হু করে।

গতকাল শনিবার রাজশাহী মহানগরীসহ এর উপকন্ঠের বাজার গুলোতে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঈদুল আজহায় চামড়াতে লবনের ব্যাপক চাহিদার দিকে লক্ষ্য রেখে ব্যবসায়ীদের কারসাজিতে লবনের দাম বাড়তে শুরু করেছে। গত ৩ মাসের ব্যবধানে লবনের দাম প্রায় দ্বিগুন হয়েছে। গতকাল প্রতিকেজি লবন প্যাকেট ৩৮ থেকে ৪০ এবং খোলা ২০/২২ টাকায় বিক্রি হয়েছে। সপ্তাহের ব্যবধানে দাম বেড়েছে কেজিতে ৫ থেকে ৭ টাকা। এই দাম বৃদ্ধি অব্যাহত আছে। ৩ মাস আগে প্রতিকেজি লবনের দাম ছিল প্যাকেট ২০ থেকে ২৫ টাকা এবং খোলা ৯/১০ টাকা। সংশ্লিষ্টরা জানান, ঈদুল আজহায় চামড়ায় লবন ব্যবহারে ব্যাপক চাহিদার দিকে লক্ষ্য রেখে একটি ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট লবন স্টক করে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করায় এই পরিসি’তি তৈরী হয়েছে।

রাজশাহী জেলা চামড়া ব্যবসায়ী গ্রুপের সেক্রেটারী আব্দুর রউফ বলেন, লবনের দর নিয়ন্ত্রনে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ জরুরী হয়ে পড়েছে। তা না হলে ঈদের আগে লবনের দাম আরো বৃদ্ধি পাবার আশংকা রয়েছে। আর এই লবনের দাম বৃদ্ধির প্রভাব পড়বে চামড়ার দামে। লবনের দাম বৃদ্ধির কারনে কমে যাবে চামড়ার দাম। চামড়া ব্যবসায়ীরা বলেন, ১ টি গরুর চামড়ায় লবন লাগে প্রায় ৭ কেজি এবং ১ টি ছাগলে লাগে ১/২ কেজি।

খবরঃ দৈনিক সোনালী সংবাদ