রাজশাহীতে শিক্ষিকার টাকা ছিনতাইয়ের পর ধর্ষণের চেষ্টা : আটক ১

পুঠিয়া রাজশাহী

রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলায় এক স্কুল শিক্ষিকাকে ছিনতাইয়ের পর ধর্ষণের চেষ্টা করেছে তিন দুর্বৃত্ত। এদের মধ্যে পারভেজ (১৯) নামের এক ছিনতাইকারীকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় পুলিশ আটক করেছে । এ ব্যাপারে বুধবার পুঠিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

রাজশাহীর পুঠিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) হাফিজুর রহমান জানান, মঙ্গলবার রাজশাহী কলেজে মাস্টার্সের ভর্তি কার্যক্রম শেষে পুঠিয়ার দীঘলকান্দির নিজ বাড়িতে যাচ্ছিলেন ওই শিক্ষিকা।

পথে নির্জন স্থানে একা পেয়ে তার কাছ থেকে নগদ ১০ হাজার টাকা, গলার স্বর্ণের চেইন ও একটি স্বর্ণের আংটি অস্ত্রের মুথে ছিনিয়ে নেয় দীঘলকান্দি গ্রামের আব্বাস (৪২) ও পারভেজসহ (১৯) তিন দুর্বৃত্ত। আব্বাস স্থানীয় একটি আমবাগানের পাহারাদার।

ছিনতাইয়ের পর দুর্বৃত্তরা একপর্যায়ে ওই শিক্ষিকাকে জোরপূর্বক পাশের একটি পুকুরপাড়ে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এ সময় শিক্ষিকা বাধা দিলে তাকে মারপিট করা হয়। এক পর্যায়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেললে শিক্ষিকাকে ফেলে পালিয়ে যায় তারা। পরে গুরুতর অবস্থায় স্থানীয়রা ওই শিক্ষিকাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে।

খবর পেয়ে পুলিশ পারভেজকে গ্রেফতার করে। ভিকটিমকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতলের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) রাখা হয়েছে। বুধবার তার ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

ওসি তদন্ত হাফিজুর রহমান জানান, আটক পারভেজকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী এ ঘটনায় জড়িত অপর দুই দুর্বৃত্তকেও বর্তমানে গ্রেফতারের চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে জানান ওসি।

খবর: শীর্ষনিউজ