রাজশাহীতে শিশু ধর্ষককে গণধোলাই

পুঠিয়া রাজশাহী

দুই বছরের শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় মামুন আলী (২১) নামের এক যুবককে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিয়েছেন এলাকাবাসী।

রোববার (০৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার শিলমাড়িয়া ইউনিয়নের তেবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত মামুন আলী পুঠিয়া উপজেলার শিলমাড়িয়া ইউনিয়নের তেবাড়িয়া গ্রামের ফাকু আলীর ছেলে। তবে তার স্থায়ী ঠিকানা ধোপাপাড়া গ্রামে।

রাজশাহী পুঠিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) রাকিবুল হাসান জানান, রোববার দুপুরে উপজেলার শিলমাড়িয়া ইউনিয়নের তেবাড়িয়া গ্রামের দুই বছরের এক শিশুকে প্রতিবেশী মানুম আলী ফুসলিয়ে বাড়ির পাশে একটি ঝোপের মধ্যে নিয়ে যায়। পরে ধর্ষণ করে। শিশুটির চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসেন।

এ সময় শিশুটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে পুঠিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে পাঠায়। এছাড়া লম্পট মামুনকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে।

রাকিবুল ইসলাম আরও জানান, অভিযুক্ত মামুনকে আটক করে থানায় নেওয়া হয়েছে। বর্তমানে রামেক হাসপাতালের ওসিসিতে চিকিৎসা চলছে শিশুটির। তবে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। এ ব্যাপারে থানায় মামলা হবে বলেও জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।

খবরঃ বাংলানিউজ