রাজশাহীর অসহায় মানুষের পাশে এক জন মাসুদ রানা

পবা রাজশাহী

এক সময় পরিবার নিয়ে চরম আর্থিক সংকটে পড়েছিলেন মাসুদ রানা। ওই সময় এক ব্যাক্তি তার প্রতি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন। তার হাতের মুঠোয় যে কয়টি টাকা গুজে দিয়েছিলেন তাতে অনেকটা বিপদমুক্ত হয় মাসুদ রানা। আজ ওই পরোপকারি ব্যাক্তি আর্থিক সংকটে পড়েছে। ব্যাবসায় লোকশানে ১০ থেকে ১২ লাখ টাকা ঋণে পড়েছে। পাওনাদারের অত্যাচারে অতিষ্ট ওই ব্যক্তি এখন বাড়ি ছাড়া। বিষয়টি চোখের সামনে দেখে থেমে থাকতে পারেননি মাসুদ রানা। তাই বিপদের সময় এগিয়ে আসা মানুষটির উপকার করতে ক্যাম্পেইনে নেমেছে তিনি। আজ (বুধবার) থেকে মাসুদ রানা রাজশাহীসহ আশেপাশের জেলায় ক্যাম্পেইন করে অর্থ সংগ্রহ করবেন। আর সেই অর্থ তুলে দিবেন ওই পরোপকারি ব্যাক্তির হাতে।

মাসুদ রানা জানান, রাজশাহী পবা উপজেলার দামকুড়া ইউনিয়নের আশগ্রাম পাটনিপাড়া গ্রামের পিয়ারুল ইসলাম। একসময় অনেক ধনী ছিলেন। কিন্তু বিভিন্ন ব্যবসা বিশেষ করে গরু খামার করে লোকসানের কারণে পিয়ারুল ঋণে জর্জরিত। এনজিও ও পাওনাদারদের কারণে পিয়ারুল বাড়ি ছাড়া।

দামকুড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম জানান, পিয়ারুল অনেক ভালো মানুষ। কিন্তু ঋণের কারণে সে সমস্যায় পড়েছেন। তার বাড়িতে পাওনাদাদের লাইন লেগেই থাকে। সে কারণে অসহায় হয়ে পড়েছে পিয়ারুল।

পিয়ারুলকে ঋণ থেকে মুক্তি দিতে ক্যাম্পেইনের নামা মাসুদ রানা জানান, এক সময় তিনি অসহায় হয়ে পড়েছিলেন। ওই সময় পিয়ারুলের আর্থিক অবস্থা ভালো ছিল। অর্থ থেকে শুরু করে বিভিন্নভাবে পিয়ারুল তাকে সহযোগিতা করেছিলেন। তাই পিয়ারুলের বিপদে তিনি বাড়িতে বসে থাকতে পারেননি।

রাজশাহীর পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাজদার রহমান সরকার জানান, একজন মানুষের বিপদে অন্য মানুষ এগিয়ে আসবে এটাই হওয়া উচিত। মানুষ তো মানুষের জন্য। পিয়ারুলের এ বিপদে মাসুদ রানা যে উদ্যোগ নিয়েছে তা প্রশংসার যোগ্য।

মাসুদ রানা জানান, আজ থেকে তিনি আশেপাশের কয়েকটি জেলা ও উপজেলায় মোটরসাইকেলযোগে বের হবেন। সঙ্গে থাকবেন সজিব হোসেন (২০) নামে আরো একজন। মানুষের কাছে গিয়ে তারা সহযোগিতা চাইবেন। দশ লাখ মানুষ যদি গড়ে এক টাকা করেও সহযোগিতা করেন তাহলে পিয়ারুল ঋণ থেকে মুক্তি পাবে। তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

খবরটি প্রকাশিত হয়েছেঃ ডেইলি সানশাইন