রাজশাহীর সবজির বাজার অস্থিতিশীল

রাজশাহী

রাজশাহীর বাজারে বেশিরভাগ সবজির দাম সাধারণ ক্রেতাদের নাগালের বাইরে। অধিকাংশ সবজিরই কেজিপ্রতি দাম ৪০ টাকার ওপরে।

বিভিন্ন কাঁচাবাজার ঘুরে দেখা গেছে, আলু বাদে সব ধরনের সব্জির দামই সাধারন ক্রেতাদের নাগালের বাইরে। আর অধিক দামের কারনে স্বল্প পুঁজির ব্যবসায়ীরা এসব আনাজ কিনছে অল্প পরিমানে। সব মিলিয়ে সব্জির বাজার এখন অস্থিতিশীল।
বেশ কিছুদিন ধরেই বেড়ে আছে কাঁচা মরিচের দাম। বিক্রি হচ্ছে আড়াই শ’ গ্রাম মরিচ ৪৫ থেকে ৫০ টাকায়। বাড়তির দিকে পেঁয়াজের দাম দেশী ৫০ টাকা আর ভারতের ৪৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। বরবটি ৬০ টাকা, ঝিঙ্গা ৪০ টাকা, চিচিঙ্গা ৪০ টাকা, পটল ৪০ টাকা, বেগুন ৫০ থেকে ৬০ টাকা, ঢেঁড়স ৬০ থেকে ৮০ টাকা, করলা ৬০ টাকা, লতি ৬০ টাকা ও মূলা ৩০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। ছোট (২০০/২৫০ গ্রাম) বাঁধাকপি প্রতিটি ৩০ থেকে ৪০ টাকা এবং লাল শাক ও ডাটা শাকের আঁটি ১৫ থেকে ২০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। তবে চাল, ডাল ও রসুনের দাম স্থিতিশীল রয়েছে।

বিক্রেতারা বলছেন, বাজারে সরবরাহ কমে যাওয়ায় পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। নতুন পেঁয়াজ না ওঠা পর্যন্ত দাম কমার সম্ভাবনা নেই। তবে সেজন্য কয়েকদিন অপেৰা করতেই হবে। সাপ্তাহিক ছুটির দিন গতকাল শুক্রবার বাজার ঘুরে দেখা গেছে, পেঁয়াজ কিনতেই মুখ বেজার হচ্ছে ক্রেতাদের।

অপরিবর্তিত থেকে কেজিপ্রতি মসুর ডাল ১০০ টাকা, মোটা চাল ৫০ টাকা ও চিকন চাল ৫৫ থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। মুরগির দামও কিছুটা বেড়েছে। বেড়েছে ডিমের দামও।

খবরঃ দৈনিক সোনালী সংবাদ