রাজশাহী থেকেই ছেড়ে যাবে হজ ফ্লাইট

রাজশাহী রাজশাহী বিভাগ

আগামীতে মৌসুমে রাজশাহী থেকে উড়োজাহাজে চড়ে হজ পালনে যেতে পারবেন রাজশাহীবাসীরা।

বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) বাংলানিউজকে বিষয়টি জানান রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা এমপি।

রাজশাহীবাসীর দীর্ঘ দিনের দাবির মুখে তার উদ্যোগে হাজীদের জন্য আগামী বছর থেকে প্রথমবারের মতো এই বিশেষ ব্যবস্থা চালু হতে যাচ্ছে বলে জানান সদর আসনের এই সংসদ সদস্য।

এদিকে, প্রতি বছর হজে যাওয়ার জন্য সবাইকে নির্ধারিত ফ্লাইটে উঠতে রাজশাহী থেকে বাস বা ট্রেনে করে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে যেতে হত। এজন্য হাজী ক্যাম্পে রাত্রীযাপনও করতে হত হজ গমণেচ্ছুদের। আর সিডিউল বিপর্যয় ঘটলে দুর্ভোগের শেষ থাকতো না।

এর ওপর কাস্টমস ও ইমিগ্রেশনের প্রক্রিয়া শেষ করতে বাড়তি ঝামেলা পোহাতে হত। কিন্তু রাজশাহীর শাহ মখদুম বিমান বন্দর থেকে হজ ফ্লাইট চালু হলে হজ গমণেচ্ছুদের সব দুর্ভোগ লাঘব হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য এবং ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, বিষয়টি নিয়ে এরই মধ্যে বেসামরিক বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী এবং পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেননের সঙ্গে তার বৈঠক হয়েছে। বৈঠক হয়েছে মন্ত্রণালয়ের সচিবের সঙ্গেও। বৈঠকে সুনির্দিষ্ট প্রস্তাবনার পর তাকে রাজশাহী থেকে হজ ফ্লাইট চালুর বিষটি সম্পর্কে আশ্বস্থ করা হয়েছে।

এছাড়া গত ১৮ নভেম্বর সংসদে রাজশাহী-৩ আসনের সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিনের এক প্রশ্নের উত্তরে বক্তব্য রাখতে গিয়েও বিমানমন্ত্রী শাহ মখদুমে আগামী মৌসুমে হজ ফ্লাইট চালুর বিষয়টি জানিয়েছেন।

রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা জানান, আগামী মৌসুমে রাজশাহীর শাহ মখদুম বিমান বন্দর থেকে হজ ফ্লাইট ছাড়বে। এখান থেকেই কাস্টমস ও ইমিগ্রেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা যাবে। কেবল ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে গিয়ে কানেক্টিং বিমানে উঠে জেদ্দায় পৌঁছাতে হবে। বিমানে ওঠার জন্য হজ গমণেচ্ছুদের আর হাজী ক্যাম্পে গিয়ে রাত্রীযাপন, অন্যান্য দুর্ভোগ বা হয়রানির শিকার হতে হবেনা। রাজশাহী থেকে সরাসরি যেতে পারবেন তারা।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, তার প্রস্তাবের ভিত্তিতে ২০১৭ সাল থেকে কানেক্টিং বিমান নয় শাহ মখদুম বিমান বন্দর থেকে সরাসরি জেদ্দার উদ্দেশে বাংলাদেশ বিমানের হজফ্লাইট ছাড়ার বিষয়টি চূড়ান্ত করেছে মন্ত্রণালয়। আর তাই বড় বিমান যেন রাজশাহীর শাহ মখদুম বিমান বন্দরে নামতে পারে সেজন্য রানওয়ে সম্প্রসরণের কাজও শুরু হতে যাচ্ছে শিগগিরই।

বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রীর নির্দেশনার পর সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় থেকে এ ব্যাপারে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এর মধ্যে দিয়ে শাহ মখদুম বিমান বন্দর আন্তর্জাতিক রুটে যুক্ত হতে যাচ্ছে। এটি রাজশাহীবাসীর আরও একটি বড় প্রাপ্তি হবে বলে জানান সংসদ সদস্য বাদশা।

বাংলানিউজ