রাজশাহী নগরীতে ইমাম-মোয়াজ্জিনের উপর হামলার ঘটনায় মুসল্লিদের বিক্ষোভ

রাজশাহী

নগরীতে ইমাম-মোয়াজ্জিনের উপর হামলা, মারপিটের প্রতিবাদে মুসল্লিরা বিক্ষোভ করেছেন। শুক্রবার নগরীর ছোট বনগ্রাম এলাকায় বাদ জুম্মা এ বিক্ষোভ মিছিল হয়।

এর আগে বৃহস্পতিবার একদল সন্ত্রাসীরা ছোটবনগ্রাম হেদায়াতুল আঞ্জুমান মসজিদের ইমামের বাড়িতে হামলা চালিয়ে দরজা জানালা ভাঙচুর এবং মসজিদের মুয়াজ্জিমকে মারপিট ও ইমামকে লাঞ্ছিত করে।

এ বিষয়ে পরামর্শ গ্রহণ করে জুম্মার নামাজ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল মসজিদ হতে শুরু করে শালবাগান পাওয়ার হাউস পর্যন্ত যায়।

মিছিল শেষে মুসল্লিরা এক পথসভায় বলেন ১৮ ও ১৯নং ওয়ার্ডের অন্তর্গত রবের মোড়ের কতিপয় সন্ত্রাসী প্রতিনিয়ত বিভিন্ন এলাকায় হামলা চালিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে চাঁদা আদায় করে। এদের ভয়ে অনেকেই দাবীকৃত চাঁদা দিতে বাধ্য হয়। গত শবে মেরাজ উপলক্ষে মিলাদ মাহফিলে মসজিদের ইমাম চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে বক্তব্য প্রদান করার জন্যই সন্ত্রাসীরা ইমামের উপর ক্ষিপ্ত হয় এবং ওই একই দিন মসজিদের বাথরুম ও কল সারাক্ষণ না খোলা রাখার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ায় তারা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে এই কাজ করে বলে কমিটি মনে করেন। পথসভায় বক্তব্য দেন, মসজিদের সভাপতি সাবেক অধ্যক্ষ আব্দুল খালেক, বিশিষ্ট সমাজসেবক তৌহিদুল হক সুমন ও জামালউদ্দিন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন হাসেন আলী মন্ডল, আলাউদ্দিন আহম্মেদ, মশিউর রহমান, আবু শাহিন রেজা, জুলফিকার আলী দুলাল, আব্দুস সাত্তার, জাকির হোসেন সরদার, শুভ, রাজু, মামুন, শফিকুল, শহিদুলসহ অত্র এলাকার সকল মুসল্লিগণ।

মুসল্লিরা উপরোক্ত বিষয়ে অবিলম্বে সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন। এ বিষয়ে মসজিদ কর্তৃপক্ষ বাদী হয়ে বোয়ালিয়া মডেল থানায় সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

খবরঃ দৈনিক সানশাইন