রাজশাহী নগরীর নদী তীরবর্তী বাড়ি-ঘরে ভাঙন অব্যাহত

রাজশাহী

রাজশাহী নগরীর শাহমখদুম কলেজের পেছনে শেখেরচক বিহারী বাগান এলাকার শহর রক্ষা বাঁধের কোল ঘেষে নির্মিত প্রায় ১ শ’ ফুট রাস্তা দেবে যাবার পর গতকাল শুক্রবার ওই রাস্তার পাশের ৪টি বাড়ির কিছু অংশ ভেঙ্গে পড়েছে। ঝুঁকিতে রয়েছে আরো ৩টি বাড়ি। এতে করে তীরবর্তী এলাকায় বসবাসকারী মানুষের মধ্যে দেখা দিয়েছে আতঙ্ক।

এলাকাবাসী, জানান গতকাল জুম্মার নামাজের সময় শেখেরচক বিহারী বাগানের পদ্মা পাড়ের দেবে যাওয়া ওই রাস্তার পাশের ৪টি বাড়ির অংশ বিশেষ ভেঙে পড়ে।
ভেঙে যাওয়া এই বাড়িগুলোর মালিক মৃত খলিলের পুত্র আলমগীর, মৃত জলিলের পুত্র ইদ্রিস, মৃত কাঙ্গাল সরদারের পুত্র কালাম ও আবদুর রশিদের বাড়ি।
এছাড়া পাশের আরো ৩টি বাড়ি ঝুঁকিতে রয়েছে এবং বাড়িতে ফাটল ধরেছে। এই বাড়িগুলোর মালিক রশিদের পুত্র আনোয়ার হোসেন, মৃত সোলেমানের পুত্র আজিজুল ও আসলামের বাড়ি। এই বাড়িগুলোও যে কোন সময় ভেঙে পড়তে পারে।
এই পরিসি’তিতে নগরীর আলুপট্রি, সেখেরচক এবং পঞ্চবটি এলাকার নদীর তীরবর্তী বাড়ি ঘর নদী গর্ভে বিলীন হওয়ার আশঙ্কায় মানুষ জনের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।
এদিকে, গত মঙ্গলবার রাজশাহী নগরীর শাহমখদুম কলেজের পেছনে পাঁচানী মাঠ ও পঞ্চবটি এলাকার শহর রৰা বাধেঁর কোল ঘেষে দেবে যাওয়া প্রায় ১শ’ ফুট রাস্তা পরিদর্শন করেছেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার।

তিনি ওই এলাকায় বসবাসকারী মানুষদের সাথে কথা বলেন এবং আতঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান জানান।
এ সময় মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের সাথে কথা বলে ওই রাস্তাটির দ্র্বত মেরামত করার ব্যবস’া নেয়া হবে।
এ ব্যাপারে রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মকলেসুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বিষয়টি তারা নজরে রেখেছেন এবং সরেজমিন পরিদর্শন করেছেন।
তিনি জানান, নদী তীর রৰা বাঁধ ঠিক আছে এবং ওই স’ানে পদ্মার পানিও সি’র রয়েছে। তবে তীর ঘেষে সিটি কর্পোরেশন নির্মিত রাস্তাটি দেবে গেছে। তিনি বলেন রাস্তাটি মেরামত করা হলে পরিসি’তি স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

খবরঃ দৈনিক সোনালী সংবাদ