রাজশাহী নগরে করোনায় আক্রান্ত দ্বিতীয় ব্যক্তি শনাক্ত

রাজশাহী

রাজশাহী নগরে দ্বিতীয় কোভিড–১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে। আজ বুধবার ঢাকাফেরত এক নারীর নমুনা পরীক্ষায় শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এই নারীর বয়স ৬৫ বছর। তিনি ১৭ মে ঢাকা থেকে রাজশাহীতে ফেরেন। রাজশাহী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ নওশাদ আলী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রাজশাহী নগরের প্রথম রোগীও একজন নারী। তিনি নরসিংদীফেরত। তবে এই দুই রোগীর শরীরেই করোনার কোনো উপসর্গ নেই। রাজশাহী জেলায় ১২ এপ্রিল প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হন। এর এক মাস পর ১৪ মে প্রথম রাজশাহী নগরে করোনা রোগী শনাক্ত হয়। তিনি নগরের উপর ভদ্রা এলাকার ৫০ বছর বয়সী নারী।

আজ পরীক্ষায় রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আরেকজন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। তিনিও ঢাকাফেরত। এ নিয়ে রাজশাহীতে মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ২৬ জনে। এর মধ্যে ২৫ জনের পরীক্ষা রাজশাহীতে আর ১ জন ঢাকায় পরীক্ষা করেছেন। তিনি বর্তমানে পবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আইসোলেশনে রয়েছেন। একজন রোগী মারা গেছেন।

রাজশাহী নগরের দ্বিতীয় রোগীর বাড়ি নগরের চন্ডিপুর এলাকায়। ওই নারীর ছেলে জানান, তাঁর মা ঢাকায় ছোট ছেলের বাসায় ছিলেন। সেখানে তিনি একভাবে বাসায় থাকতে পারছিলেন না। রাজশাহীতে নিজের বাড়িতে ফেরার জন্য অস্থির হয়ে উঠছিলেন। তাই বাধ্য হয়ে মাইক্রোবাসে করে ১৭ মে রাজশাহী আনা হয়। পরের দিন তাঁর নমুনা দেওয়া হয়। আজ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ থেকে ফোন করে তাঁকে করানো পজিটিভের তথ্য দেওয়া হয়। তাঁকে আলাদা করে রাখতে বলা হয়েছে। কোনো সমস্যা হলে তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। তিনি বলেন, তাঁর মা সম্পূর্ণ সুস্থ আছেন। তাঁর কোনো রোগের লক্ষণ নেই।

নরসিংদী থেকে ফেরা নগরের প্রথম রোগীও সম্পূর্ণ সুস্থ আছেন। গতকাল বুধবার রাতে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ আছেন। তাঁর আগেও কোনো লক্ষণ ছিল না। এখনো নেই।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ প্রথম আলো