রাজশাহী বিভাগ গঠনের পটভূমি

রাজশাহী রাজশাহী বিভাগ রাজশাহীর পরিচিতি

wpid-11018795_348180875371371_2157438518642384589_o.jpg
প্রশাসনিক ইউনিট হিসেবে রাজশাহী বিভাগের সৃষ্টি হয় ১৮২৯ সালে। তখন বিভাগীয় সদর দপ্তর ছিল মুর্শিদাবাদে। মুর্শিদাবাদ, মালদহ,জলপাইগুড়ি, রংপুর, দিনাজপুর, বগুড়া, পাবনা ও রাজশাহী- এ ৮টি জেলা নিয়ে গঠিত ছিল তখনকার রাজশাহী বিভাগ।

কয়েক বছর পর বিভাগীয় সদর দপ্তর বর্তমান রাজশাহী শহরের রামপুরা- বোয়ালিয়ায় স্থানান্তরিত হয়। পরবর্তীতে ১৮৮৮ সালে বিভাগীয় সদর দপ্তর স্থানান্তরিত হয় জলপাইগুড়িতে।

১৯৪৭ সালে দেশ বিভাগের পর পুনরায় বিভাগীয় সদর রাজশাহীতে স্থানান্তরিত হয়। ১ অক্টোবর ১৯৬০ খুলনা বিভাগ সৃষ্টি হওয়ার পূর্বে বর্তমান খুলনা বিভাগের জেলা গুলোও রাজশাহী বিভাগের অন্তর্ভুক্ত ছিল। খুলনা বিভাগ আলাদা হওয়ার পর থেকেই রাজশাহী বিভাগের ৮টি জেলা যথাঃ
রাজশাহী,নাটোর,নওগাঁ,চাঁপাইনবাবগঞ্জ, পাবনা,সিরাজগঞ্জ,বগুড়া ও জয়পুরহাট এবং রংপুর অঞ্চলের ৮টি – রংপুর, কুড়িগ্রাম,গাইবান্ধা, নীলফামারী, লালমনিরহাট, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড় – এই মোট ১৬টি জেলা রাজশাহী বিভাগের অন্তর্ভুক্ত ছিল।

২৫ জানুয়ারি ২০১০ রংপুর অঞ্চলের ৮টি জেলা নিয়ে রংপুর বিভাগ গঠন করায় রাজশাহী বিভাগের বর্তমান ৮টি জেলা নিয়ে রাজশাহী বিভাগ নতুন রুপ লাভ করে।

রাজশাহী বিভাগের মোট আয়তন ১৮,১৫৩.০৮ বর্গ কি.মি। যার মধ্যে-

-বৃহত্তম জেলাঃ নওগাঁ (৩,৪৩৫.৬৫ বর্গ কি.মি)
-ক্ষুদ্রতম জেলাঃ জয়পুরহাট (১,০১২.৪১ বর্গ কি.মি)
-জনসংখ্যায় বৃহত্তম জেলাঃ বগুড়া (৩৫,৩৯,২৯৪ জন)
-জনসংখ্যায় ক্ষুদ্রতম জেলাঃ জয়পুরহাট (৯৫০৪৪১ জন)
-জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার বেশি- পাবনা (১.৪৭%)
-জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার কম- জয়পুরহাট (০.৭৫%)
-জনসংখ্যার ঘনত্ব বেশি- সিরাজগঞ্জ (১২৯০ জন)
-জনসংখ্যার ঘনত্ব কম- নওগাঁ (৭৫৭ জন)
-সাক্ষরতার হার বেশি- জয়পুরহাট (৫৭.৫%)
-সাক্ষরতারর হার কম- সিরাজগঞ্জ (৪২.১&)

Leave a Reply

Your email address will not be published.