রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ, হল ছাড়ছেন শিক্ষার্থীরা

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

বিশ্বজুড়ে মহামারি আকার ধারণ করা করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে বুধবার (১৮ মার্চ) থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত দেশের সব স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। সরকারের এ সিদ্ধান্তের আলোকে বন্ধ থাকবে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি)। তবে ৩১ মার্চ ছুটি শেষ হলে পুনরায় খুলে দেওয়া হবে আবাসিক হলগুলো।

বুধবার বিকেল ৪টার মধ্যে হল ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এদিন সকাল থেকেই হল ছাড়তে শুরু করেছেন শিক্ষার্থীরা। কেউ ট্রেনে, কেউ বা বাসে করে ছুটছেন বাড়ির উদ্দেশ্যে।

বিশ্ববিদ্যালয়টির জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রভাষ কুমার কর্মকার  বলেন, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ মোকাবিলায় দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নোটিশের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কার্যক্রম চলবে।

রাবির প্রাধ্যক্ষ পরিষদের আহ্বায়ক অধ্যাপক আব্দুল আলীম  বলেন, ১৮ মার্চ বিকেল ৪টার মধ্যে আবাসিক শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে ৩১ মার্চ ছুটি শেষ হলে সকাল ১০টায় আবাসিক হলগুলো খুলে দেওয়া হবে।

রাবির শহীদ হবিবুর রহমান হলের আবাসিক শিক্ষার্থী ও আইন বিভাগের ছাত্র রাশেদুল আসলাম  বলেন, আমাদের মাস্টার্সের পরীক্ষা মাত্র একটা বাকি ছিল। কিন্তু এ ছুটিতে আমাদের পরীক্ষা পিছিয়ে গেল। আবার কবে বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে এবং পরীক্ষা হবে? সেটির কোনো নিশ্চয়তা নেই। কিন্তু কিছু করার নেই। আগে-তো জীবন বাঁচাতে হবে। তাই প্রশাসনের নির্দেশে হল ছেড়ে চলে যেতে হচ্ছে।

তাপসী রাবেয়া হলের আবাসিক শিক্ষার্থী মরিয়ম খাতুন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় ছেড়ে চলে গেলেই যে আমরা নিরাপদ, তা কিন্তু নয়। সর্বদা আমাদের সচেতন থাকতে হবে।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজ