রাজশাহী বোর্ডে পাসের হার ৯০ দশমিক ৭০ শতাংশ

ক্যাম্পাসের খবর রাজশাহী

রাজশাহী মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অধীন অনুষ্ঠিত এসএসসি পরীক্ষায় এবার পাসের হার ৯০ দশমিক ৭০ শতাংশ। আর মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৭৩৪৯ জন।

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তরুন কুমার সরকার বৃহস্পতিবার (০৪ মে) দুপুর ১২ টার দিকে বাংলানিউজকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তবে এর মধ্যে কতজন ছাত্র এবং কতজন ছাত্রী রয়েছে তা জানাতে চাননি পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক। দুপুর ১টায় বোর্ডের সভাকক্ষে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। সেখানে সব তথ্য জানানো হবে বলে উল্লেখ করেন শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক।

তবে ফালাফল পর্যবেক্ষণে দেখা যায়, গতবারের চেয়ে এবার পাসের হার ও জিপিএ-৫ প্রাপ্তির হার কমেছে। গতবার পাসের হার ছিল ৯৫ দশমিক ৭০ শতাংশ। এবার পাসের হার কমেছে ৫ শতাংশ। আর গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১৭ হাজার ৫৯৪ জন শিক্ষার্থী। সেখানে এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৭ হাজার ৩৪৯ জন শিক্ষার্থী। ফলে জিপিএ-৫ কমেছে ২৪৫টি।

তবে এটাকে ফল বিপর্যয় মানতে নারাজ রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তারা। নতুন পদ্ধতিতে উত্তরপত্র মূল্যায়ন করায় এবার সঠিক রূপে ফলাফল পাওয়া গেছে বলে দাবি করেছেন, রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তরুন কুমার সরকার।

এর আগে গত ২ ফেব্রুয়ারি এসএসসি পরীক্ষা শুরু হয়। পরীক্ষার ৬০ দিনের মাথায় আজ ফল প্রকাশ করা  হয়। দুপুর ২টার পর স্কুলে ফল পাবে শিক্ষার্থীরা।

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তরুণ কুমার সরকার জানান, এবারের এসএসসি পরীক্ষায় এই শিক্ষা বোর্ড থেকে মোট এক লাখ ৬৭ হাজার ৩৭২ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়েছিলো। এর মধ্যে ছাত্র ৮৬ হাজার ৮২০ জন ছাত্র এবং ছাত্রী ৮০ হাজার ৫৫২ জন।

মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে নিয়মিত ১ লাখ ৬০ হাজার ৩১১ জন। মান উন্নয়নে ৩৩১ জন ও অনিয়মিত ৬ হাজার ৭৩০ জন শিক্ষার্থী রয়েছে।

তিনি জানান, মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে রাজশাহী জেলায় ২৮ হাজার ৪শ’ ৮৭ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১২ হাজার ৪৯ জন, নাটোরে ১৫ হাজার ৭শ’ ৪২ জন, নওগাঁয় ২০ হাজার ৮শ’ ৯১ জন, পাবনায় ২৪ হাজার ৩শ’ ৬ জন, সিরাজগঞ্জে ২৮ হাজার ৮৯ জন, বগুড়ায় ২৮ হাজার ৬শ’ ২৩ জন ও জয়পুরহাটে ৮ হাজার ৩শ’ ৮৫ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। তত্ত্বীয় পরীক্ষা শেষ হয় ২ মার্চ।

খবরঃ বাংলানিউজ

81 thoughts on “রাজশাহী বোর্ডে পাসের হার ৯০ দশমিক ৭০ শতাংশ

  1. অনার্স পাশ করা যেকোন ছেলে বা মেয়ের কাছে সবচেয়ে বিব্রতকর প্রশ্ন “তুমি এখন কী করো? ” কোনো আত্মীয়ের বাসায় গেলে, গাড়িতে কারো সাথে হঠাৎ দেখা হলে, স্কুলের সেই প্রিয় স্যার এর সাথে দেখা হলে, কোন অনুষ্ঠানে মা কাউকে সালাম করতে বলে পরিচয় করিয়ে দিলে -সবার তখন একটাই প্রশ্ন “বাবা, তুমি এখন কী করো?” আপনি কী করছেন সেটাই যেন এক জাতীয় সমস্যা! রাস্তায় কিংবা গাড়িতে বা কোন অনুষ্ঠানে হঠাৎ পুরোনো বন্ধুর সাথে দেখা হলে তার ও একই প্রশ্ন, “দোস্ত এখন কী করিস?” আপনার আজকের একটা কঠিন সিদ্ধান্তই আগামীতে উত্তর নিয়ে আসতে পারে এমন প্রশ্নের। : পৃথিবীতে এমন একজন লোক ও পাওয়া যাবে না, যে কি

  2. রাজশাহীর ছেলেমেয়ে যারা উত্তির্ন হয়েছ তাদের জন্য অনেক সুভকামনা, যারা খারাপ করেছ তাদের জন্যও সুভকামনা মন খারাপ করবে না আগামীতে নিশ্চই ভাল করবে। সবার জন্য দোয়া রইল।

Comments are closed.