রাবিতে ভর্তি কোটা পাচ্ছেন মুক্তিযোদ্ধার নাতি-নাতনিরা

ক্যাম্পাসের খবর রাজশাহী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ভর্তির ক্ষেত্রে এ বছর থেকে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ছেলে-মেয়ের পাশাপাশি নাতি-নাতনিরাও বিবেচিত হবেন।

২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষের সম্মান প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় এ কোটা বাস্তবায়ন করা হবে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এমএ বারী।

তিনি জানান, এ বছর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী ভর্তিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটার ক্ষেত্রে তাদের ছেলে-মেয়ের পাশাপাশি নাতি-নাতনিরাও বিবেচিত হবেন বলে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার কমিটিতে আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

তিনি আরও জানান, বর্তমানে ঢাকা ও চট্টগ্রামসহ প্রায় সব বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরির ক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধাদের নাতি-নাতনিদের বিবেচনা করা হচ্ছে। পাশাপাশি রাজশাহী অঞ্চলের মুক্তিযোদ্ধাদের দীর্ঘদিনের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে মুক্তিযোদ্ধার নাতি-নাতনিদের বিবেচনা করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

১০ সেপ্টেম্বর থেকে রাবির ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের সম্মান প্রথম বর্ষে ভর্তির আবেদন শুরু হবে। চলবে ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ২২ থেকে ১৬ অক্টোবর পর্যন্ত।

খবরঃ বাংলানিউজ

10 thoughts on “রাবিতে ভর্তি কোটা পাচ্ছেন মুক্তিযোদ্ধার নাতি-নাতনিরা

  1. ওদের জন্য আলাদা ভার্সিটি করেন সবচেয়ে better হবে . আলাদা রাষ্ট্র করে দেন আরও ভালো হবে

  2. দেশ থেকে কোটাপ্রথা বাতিল না করলে দেশ মেধাশূন্য হবে এবং ভাল ছাএ ছাএীদের মধো হতাশা বেড়ে যাবে।

Comments are closed.