রাবির ভর্তিচ্ছুর বাবা নিখোঁজের তিন দিন পর উদ্ধার

ক্যাম্পাসের খবর রাজশাহী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ভর্তিচ্ছুর বাবা আবদুল কাইয়ুমকে নিখোঁজের তিনদিন পর উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা দুইটার দিকে তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ থেকে তাকে উদ্ধার করে থানায় রাখা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী হাসান।

ওসি বলেন, আবদুল কাইয়ুমের বাড়ি ময়মনসিংহের এনায়েতপুরে। পরীক্ষা শেষে মেয়েকে ময়মনসিংহের একটি মেসে পৌঁছে দিয়ে তিনি বাড়ির উদ্দেশ্যে বের হন। তিনি সিএনজিতে উঠলে তাকে জামালপুরে নামিয়ে দেয়। পরে বাস ধরে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে আসেন। তিনি ধার্মিক হওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে অবস্থান করেন।

অনেক খোঁজাখুঁজির পর বিশ্ববিদ্যালয়ের এক কর্মচারির দেওয়া তথ্যে তার খোঁজ পায়। পরে তাকে উদ্ধার করে থানায় রাখা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, তার বাড়িতে খবর দেওয়া হয়েছে। পরিবারের লোকজন আসলে তাকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

এর আগে গত ২১ অক্টোবর শনিবার রাতে ময়মনসিংহ থেকে রাজশাহীতে আসেন তিনি। ২২ অক্টোবর এ ও ই ইউনিটের পরীক্ষা শেষে রাতে ময়মনসিংহের দিকে রওনা হন। ২৩ অক্টোবর সকালে মেয়ে সারাকে ময়মনসিংহের মেসে রেখে বাড়িতে যাচ্ছেন বললেও বাড়িতে পৌঁছাননি তিনি।

মেয়ে দিলারা জান্নাত সারার দাবি ছিলো, কর্মস্থল সাগরদিঘি এলাকায় রফিক রাজু স্কুলে যোগ দেওয়ার কথা থাকলেও সেখানে যাননি। ফোন বন্ধ  থাকায় উদ্বিগ্ন হয়ে তারা ময়মনসিংহ পুলিশের থেকে ফোন ট্র্যাক করেন।

বিভিন্ন সময়ে তিনবার ট্র্যাক করলে রাজশাহীর বিনোদপুরে ঠিকানা দেখায়। এ ঘটনায় ফুলবাড়িয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন তারা।

খবরঃ ডেইলি সানশাইন