রাবির ভর্তি পরীক্ষার ‘সি’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার ‘সি’ ইউনিটের ফল প্রকাশিত হয়েছে।

বুধবার (৬ নভেম্বর) বিকেলে সি-ইউনিট ভর্তি পরীক্ষা কমিটির চিফ কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ড. একরামুল হামিদ স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, উত্তীর্ণ ভর্তিচ্ছুদের আগামী ১৫ নভেম্বর থেকে ২০ নভেম্বরের মধ্যে অনলাইনে ভর্তির বিভাগের পছন্দক্রম পূরণ করতে হবে। কোনো ভর্তিচ্ছু নির্ধারিত সময়ের মধ্যে পছন্দক্রম পূরণ করতে না পারলে সি-ইউনিটে তার প্রার্থিতা বাতিল বলে গণ্য হবে এবং সি-ইউনিটের কোনো বিভাগে ভর্তির আর কোনো সুযোগ থাকবে না।

পছন্দক্রম পূরণ করার সময় কোনো ভর্তিচ্ছু কোন বিভাগে ভর্তি হতে আদৌ আগ্রহী না হলে সেটি পছন্দক্রম থেকে বাদ রাখতে পারবে। তবে পছন্দক্রম দেওয়ার পর সে অনুযায়ী কোন বিভাগে ভর্তির জন্য নির্বাচিত হলে সেই বিভাগে অবশ্যই ভর্তি হতে হবে, নতুবা সি-ইউনিটে তার প্রার্থিতা বাতিল বলে গণ্য হবে এবং পরবর্তীতে সি-ইউনিটের কোন বিভাগে ভর্তির আর সুযোগ থাকবে না।

পরবর্তীতে আসন শূন্য হওয়া সাপেক্ষে শুধুমাত্র ভর্তি হওয়া ছাত্র-ছাত্রীদের বিভাগ-পছন্দের ক্রম অনুসারে স্বয়ংক্রীয়ভাবে বিভাগ পরিবর্তন করা হবে। এজন্য প্রার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয়ে আসতে হবে না, নোটিশে জানতে পারবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও উল্লেখ করা হয়, পছন্দক্রম পূরণকারী ভর্তিচ্ছুদের মধ্যে মেধাক্রম অনুসারে প্রথম নির্বাচন তালিকা আগামী ২৩ নভেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (http://admission.ru.ac.bd/undergraduate/) প্রকাশিত হবে। ১ম নির্বাচিত তালিকায় নির্বাচিতদের ২৫ নভেম্বর থেকে ১ ডিসেম্বরের মধ্যে ভর্তি হতে হবে। এ ছাড়াও শূন্য আসনের জন্য অপেক্ষমান তালিকা থেকে মেধা ও পছন্দক্রম অনুসারে ভর্তির জন্য নির্বাচন করা হবে, যার সম্ভাব্য সময়সূচি যথাসময়ে প্রকাশ করা হবে।

যে সব উত্তীর্ণ ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার সময় শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগে ভর্তি হতে আগ্রহ প্রকাশ করে বৃত্ত পূরণ করেছে, তাদের ব্যবহারিক পরীক্ষা সংক্রান্ত নোটিশ আগামী ১১ নভেম্বর প্রকাশ করা হবে। ব্যবহারিক পরীক্ষায় অনুপস্থিত পরীক্ষার্থী ওই বিভাগে ভর্তির কোনো সুযোগ পাবে না, তবে অন্যান্য বিভাগগুলোতে ভর্তির সুযোগ বহাল থাকবে।

মুক্তিযোদ্ধা কোটা ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী কোটার ভর্তি সংক্রান্ত পরবর্তী কার্যক্রম ছাত্র উপদেষ্টা দপ্তর এবং শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটার ভর্তি সংক্রান্ত পরবর্তী কার্যক্রম প্রধান চিকিৎসকের দপ্তর থেকে পরিচালিত হবে। এ বিষয়ে তাদের পক্ষ থেকে যথাসময়ে বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হবে। সি-ইউনিটে পোষ্য কোটার ভর্তি প্রক্রিয়া সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি ১১ নভেম্বর ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজ২৪