রাবির সাবেক শিক্ষার্থী সিফাত হত্যা মামলার চার্জ গঠন

ক্যাম্পাসের খবর রাজশাহী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষার্থী ও গৃহবধূ ওয়াহিদা সিফাত হত্যা মামলার চার্জ গঠন হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) দুপুরে ঢাকা দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৩ এ সিফাতের স্বামী-শ্বশুরসহ চারজনের বিরুদ্ধে এ চার্জ গঠন করে ১৭ আগস্ট সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ধার্য করা হয়েছে।

ওয়াহিদা সিফাত হত্যা মামলার বাদী তার চাচা খন্দকার মিজানুর রহমান জানান, নারী ও শিশু নির্যাতন আইনের ১১(ক)/৩০ ধারায় সিফাতের স্বামী মোহাম্মদ আসিফ ওরফে পিসলী, তার বাবা অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ হোসেন রমজান ও মা নাজমুন্নাহার নাজলীর বিরুদ্ধে এবং প্রথম ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক ডা. জোবাইদুর রহমানের বিরুদ্ধে ২০১ ধারায় এ অভিযোগ গঠন করা হয়।

ঢাকা দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৩ এর পিপি এবং জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতির সদস্য ছাড়াও মামলায় বাদী পক্ষে আইনজীবী ছিলেন ঢাকা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট সাইদুর রহমান মানিক।

অ্যাডভোকেট মানিক জানান, চার্জ গঠনকালে মামলার ৪ আসামিই আদালতে উপস্থিত ছিলেন। এ সময় আসামিদের আবেদনের প্রেক্ষিতে বিচারক সিফাতের স্বামী আসিফ ওরফে পিসলী ছাড়া অন্য তিনজনের জামিন বহাল রেখেছেন। পিসলীর জামিনের আবেদন বিচারক নাকচ করেছেন।

গত বছরের ২৯ মার্চ সন্ধ্যায় রাজশাহী মহানগরের মহিষবাথান এলাকায় অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ হোসেন রমজানের বাড়িতে মৃত্যু হয় গৃহবধূ ওয়াহিদা সিফাতের।

তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন ছিলো। এ ঘটনায় রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন সিফাতের চাচা মিজানুর রহমান খন্দকার। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে দায়ের করা এ মামলায় যৌতুকের দাবিতে হত্যার অভিযোগ আনা হয়।

বাদীপক্ষের আবেদনের প্রেক্ষিতে মামলাটি রাজশাহী থেকে ঢাকা দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৩ এ স্থানান্তর করে সম্প্রতি প্রজ্ঞাপন জারি করে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়।

খবরঃ বাংলানিউজ