রাবির ৬০০ কর্মচারীকে শিক্ষকদের ১২ লাখ টাকা সহায়তা

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) আবাসিক হল, বিভিন্ন বিভাগ ও ইনস্টিটিউটে কর্মরত অস্থায়ী চুক্তিভিত্তিক কর্মচারী ও ক্যাম্পাসের অস্থায়ী দোকান কর্মচারীদের ১২ লাখ টাকা অর্থ সহায়তা দিচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। সমিতির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রত্যেক কর্মচারী পাবেন নগদ ২ হাজার টাকা।

এছাড়াও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) এবং জেলা প্রশাসকের ত্রাণ তহবিলে ৫ টন করে ১০ টন চাল প্রদান করবেন শিক্ষকরা। গত ৯ মে শিক্ষক সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

মঙ্গলবার (১২ মে) রাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম ফারুকী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম ফারুকী  বলেন, আমরা শিক্ষকদের একদিনের বেতন কেটে রেখে প্রায় ১৬ লাখ টাকার ফান্ড গঠন করেছি। সেখান থেকে চুক্তিভিত্তিক কর্মচারী (যারা কাজ না করলে টাকা পান না) এবং ক্যাম্পাসকেন্দ্রিক রুটি-রুজির ব্যবস্থা করে থাকেন-এমন দোকান কর্মচারীদের তালিকা করেছি। প্রায় ৬০০ জনকে রাখা হয়েছে সেই তালিকায়। তাদের প্রত্যেককে নগদ দুই হাজার টাকা করে দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, জেলা প্রশাসক ও সিটি করপোরেশনের তহবিলে ৫ টন করে ১০ টন চাল দেওয়া হবে। সেটা প্রশাসন ও সিটি করপোরেশন যাতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকার মানুষদের অগ্রাধিকার দিয়ে বিতরণ করেন সেজন্যও অনুরোধ করা হবে। কারণ বিশ্ববিদ্যালয়ের আশপাশের অনেক অসহায় মানুষ ক্যাম্পাসকেন্দ্রিক জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন।

অধ্যাপক ফারুকী আরও বলেন, আমরা চলতি সপ্তাহে সব প্রস্তুতি শেষ করব। আগামী সপ্তাহে তালিকাভুক্ত সবার মধ্যে সহায়তা পৌঁছে দেওয়ার সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে।

প্রসঙ্গত, এর আগে করোনা ভাইরাস সংক্রমণে সৃষ্ট পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ত্রাণ তহবিলে নগদ এক কোটি টাকা দেয় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজ