রাবি ক্যাম্পাসে শিক্ষকের মেয়ের সঙ্গে একী করল যুবক!

ক্যাম্পাসের খবর রাজশাহী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

রাবি স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্রী ক্লাস শেষে বাসায় ফিরছিলেন। বাবা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক তাই ফিরছিলেন শিক্ষক কোয়ার্টারে। কিন্তু পথেই শ্লীলতাহানির শিকার হতে হয়েছে তাকে। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসেই তাকে একা পেয়ে ওই যুবক পেছন থেকে এসে যৌন হয়রানি করে। পরে ওই ছাত্রীর চিৎকার শুনে যুবকটিকে আটক করে পুলিশে দেয়া হয়। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসেই ছাত্রীদের এমন নিরাপত্তাহীনতা নিয়ে শিক্ষার্থীরা ক্ষোভে ফেটে পড়েন।

জানা গেছে, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের আবাসিক এলাকা থেকে শরিফুল নামে এক যুবককে আটক করা হয়। শরিফুল ইসলাম রাজশাহীর মাসকাটাদিঘী এলাকার মনসুর আলীর ছেলে। সকালে রাবি স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্রী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের এক প্রফেসরের মেয়ে কাজলা গেট দিয়ে পশ্চিমপাড়ায় বাসায় ফিরছিলেন। ওই ছাত্রী মন্নুজান হলের পেছনের রাস্তা দিয়ে পশ্চিপাড়ায় প্রবেশ করছিল। দীর্ঘক্ষণ পেছন থেকে অনুসরণ করে আসা শরিফুল অতর্কিত তার পথরোধ করে শারীরিকভাবে যৌন নির্যাতন শুরু করে। এ সময় ওই ছাত্রীর চিৎকারে ওই এলাকায় দায়িত্বরত নিরাপত্তা প্রহরীরা ছুটে এসে শরিফুলকে ধাওয়া দিয়ে আটক করে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তাকে আটক করে।

এঘটনার প্রতিবাদে বহিরাগতদের উৎপাতের প্রতিবাদে বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের শিক্ষার্থীরা অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। তারা অনুষদ চত্বরে বেঞ্চ ফেলে এ কর্মসূচি পালন করে।

মতিহার থানার ওসি হুমায়ুন কবির বলেন, ‘এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করায় বহিরাগত যুবককে আটক করা হয়েছে।

খবরঃ ক্যাম্পাসলাইভ২৪