রাবি ছাত্রলীগ কর্মী হত্যা মামলার আসামি কারাগারে

ক্যাম্পাসের খবর রাজশাহী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) ছাত্রলীগের সাবেক কর্মী ফারুক হোসেন হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি অলিউল ইসলাম টিপুকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

আসামি অলিউল ইসলাম টিপু রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের উচ্চমান সহকারী।

রাজশাহীর মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবীর জানান, মঙ্গলবার দুপুরে আরবি বিভাগের সামনে থেকে অলিউল ইসলাম টিপুকে গ্রেফতার করে মতিহার থানা পুলিশ। পরে তাকে থানায় রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তার বিরুদ্ধে আদালতের গ্রেফতারি পরোয়ানা ছিল। দীর্ঘদিন ধরে তিনি পলাতক ছিলেন।

অলিউল ইসলাম ফারুক হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত ৯৮ নম্বর আসামি বলে জানান ওসি।

এর আগে ২০১০ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি গভীর রাতে ‘জয় বাংলা’ শ্লোগান দিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালায় শিবির ক্যাডাররা। এতে ছাত্রলীগ কর্মী ফারুক হোসেন নিহত হন। ঘটনার পরদিন ক্যাম্পাসের একটি ম্যানহোল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় রাবি ছাত্রলীগের তৎকালীন সাধারণ সম্পাদক মাজেদুল ইসলাম অপু বাদী হয়ে শিবিরের ৩৫ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত পরিচয় অর্ধশতাধিক শিবির নেতাকর্মীর নামে মতিহার থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। ঘটনার প্রায় আড়াই বছর পর ২০১২ সালের ২৮ জুলাই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জিল্লুর রহমান আদালতে ১২৬৯ পৃষ্ঠার অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

জামায়াতের আমির মতিউর রহমান নিজামী, সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মুহাম্মদ মুজাহিদ, নায়েবে আমির দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী, রাজশাহী মহানগর আমির আতাউর রহমান, রাবি ছাত্র শিবিরের তৎকালীন সভাপতি শামসুল আলম গোলাপ, সেক্রেটারি মোবারক হোসেন, নবাব আব্দুল লতিফ হল শাখা ছাত্রশিবিরের সভাপতি হাসমত আলী, শহীদ হবিবুর রহমান হলের সভাপতি রাইজুল ইসলাম, শিবিরকর্মী রুহুল আমিন ও বাপ্পীসহ ১১০ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে ওই চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করেন এসআই জিল্লুর রহমান।

বাংলানিউজ-http://www.banglanews24.com/fullnews/bn/468621.html