রামেক হাসপাতালে সেবার মান নিশ্চিতে সতর্ক থাকার নির্দেশ

রাজশাহী

রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের সেবার মান নিয়ে আরও সতর্ক থাকার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা। পাশাপাশি হাসপাতাল পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি বাদশা চিকিৎসাসেবার মান আরও বাড়ানোর তাগিদ দেন।

একইসঙ্গে চিকিৎসাসেবা প্রাপ্তিতে রোগীদের যেনো কোনো দুর্ভোগ না হয় সেজন্য সবাইকে সম্মিলিতভাবে কাজ করারও আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার (০৩ সেপ্টেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রামেক হাসপাতাল পরিচালনা পর্ষদের সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে বাদশা এ নির্দেশনা দেন।

তিনি বলেন, এই হাসপাতাল রাজশাহীসহ গোটা উত্তরাঞ্চলের মানুষকে সেবা দিয়ে থাকে। আশপাশের জেলা ছাড়াও অনেক দূর-দূরান্ত থেকে ভালো চিকিৎসার জন্য মানুষ এই হাসপাতালে ছুটে আসে। তাই এখানকার চিকিৎসাসেবা আরও আধুনিক ও যুগোপযোগী করে তুলতে হবে।

সভায় বাদশা জানান, রামেক হাসপাতাল পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি হওয়ার পর তিনি চিকিৎসার জন্য নতুন নতুন যন্ত্রপাতি স্থাপন করার ব্যবস্থা করেছেন। এরইমধ্যে হাসপাতালটিতে নতুন ভবন করা হয়েছে। আরও যেসব সংকট রয়েছে, সেগুলো শিগগির দূর করা হবে। এ জন্য তিনি আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তবে এ কাজে তিনি সংশ্লিষ্ট সবার সমন্বিত প্রয়াস এবং আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন।

এছাড়া সভার শুরতেই রোগীদের জন্য সকালের বরাদ্দ করা নাস্তায় নিম্নমানের পাউরুটি-কলা সরবরাহের ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এই  অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে এ সময় তাকে অবহিত করেন হাসপাতাল পরিচালক।

বুধবার (০৪ সেপ্টেম্বর) ওই কমিটির তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার কথা রয়েছে। পরে প্রতিবেদন অনুযায়ী যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য হাসপাতালের পরিচালককে নির্দেশ দেন এমপি বাদশা।

রামেক হাসপাতাল পরিচালনা কমিটির সদস্য ও মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি শাহীন আকতার রেনী, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ সরিফুল ইসলাম বাবু, হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জামিলুর রহমান, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি ডা. তবিবুর রহমান শেখ ও রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ নওশাদ আলীসহ অন্য সদস্যরা সভায় উপস্থিত ছিলেন।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর