রুয়েট ছাত্র অপহরণ মামলায় দু’জন রিমান্ডে

ক্যাম্পাসের খবর রাজশাহী রাজশাহী বিভাগ রুয়েট

রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) ছাত্রলীগ নেতা সাইফুজ্জামান সোহাগ অপহরণ মামলায় গ্রেফতার দুই ছাত্রের বিরুদ্ধে তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার (২১ ডিসেম্বর) দুপুরে শেষে রাজশাহীর অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট জুলফিকার উল্লাহ এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে আসামিদের আদালতে হাজির করে ১০দিন রিমান্ডের আবেদন জানায় পুলিশ।

বিকেলে রিমান্ড শুনানি শেষে বিচারক আসামিদের প্রত্যেককে তিনদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ডে নেওয়া দুইজন হলেন- রাজধানীর দক্ষিণখান থানার ফাইজবাদ এলাকার আব্দুল আউয়াল খানের ছেলে ও রুয়েটের সাবেক ছাত্র ফারজাদুল ইসলাম মিরন (২৮) এবং রাজশাহী নগরীর নওদাপাড়া এলাকার শওকত আলীর ছেলে ও রুয়েটের সিভিল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ইসফাক ইয়াসিফ ইপু (২১)।

রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুর রহমান জানান, উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে রোববার সকালে মহানগরীর নওদাপাড়া এলাকা থেকে রুয়েট ছাত্র ইসফাক ইয়াসিফ ইপুকে গ্রেফতার করা হয়।

পরে তার দেওয়া তথ্যানুযায়ী রাতে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে ফারজাদুল ইসলাম মিরনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

তিনি বলেন, সোমবার দুপুরে তাদের আদালতে হাজির করে রিমান্ডের আবেদন জানালে বিচারক তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

এর আগে ৮ ডিসেম্বর, বুধবার দিনগত রাত ৩টার দিকে ‘র‌্যাব পরিচয়ে’ ১০/১২ জন অজ্ঞাত ব্যক্তি শহরের তেরোখাদিয়া এলাকার বাসা থেকে সোহাগকে তুলে নিয়ে যায়।

এ সময় তার সঙ্গে থাকা একটি ডিএসএলআর ক্যামেরা, ল্যাপটপ ও বেশ কিছু মেমোরিকার্ড নিয়ে যায় তারা। তবে র‌্যাব ও পুলিশের পক্ষ থেকে আটকের বিষয়টি অস্বীকার  করা হয়।

সোহাগ রুয়েটের মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র এবং বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক।

বাংলানিউজ-http://www.banglanews24.com/fullnews/bn/451032.html