রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পে গ্যান্ট্রি ক্রেন ভেঙে ওয়ার্কশপ বিধ্বস্ত

জাতীয়

ঝড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে পাবনার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প এলাকায়। একটি গ্যান্ট্রি ক্রেন ভেঙে পড়ে ওয়ার্কশপ ভবন বিধ্বস্ত হয়েছে। গ্রিন সিটি এলাকায় একটি গাছ ভেঙে পড়ায় ৭০ ফুট সীমানা প্রাচীর ভেঙে পড়েছে।

গতকাল বুধবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। তবে এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

প্রকল্প সূত্র জানা যায়, রাত সাড়ে ১০টার দিকে রূপপুর এলাকায় প্রবল বেগে ঝড় শুরু হয়। প্রকল্পের কাজের জন্য রেল লাইনের ওপর একটি সুদীর্ঘ গ্যান্ট্রি ক্রেন নির্মাণ করেছিল রাশিয়ানরা। বাতাসের প্রবল বেগে গ্যান্ট্রি ক্রেন স্বয়ংক্রিয়ভাবে চলতে চলতে একপর্যায়ে ভেঙে ওয়ার্কশপের ওপর পড়ে যায়। গ্যান্ট্রি ক্রেনের ওজনে মাটি দেবে যায় এবং ওয়ার্কশপটি  বিধ্বস্ত হয়। প্রকল্প সূত্র জানায়, ওয়ার্কশপ নির্মাণের কাজও শেষ পর্যায়ে ছিল। এভাবে প্রবল বেগে ঝড় হতে পারে রাশিয়ান কর্মীরা বুঝে উঠতে পারেননি। তবে অন্য একটি সূত্র জানায়, লাইনের ওপর নির্মাণাধীন ক্রেন যাতে চলতে না পারে এর ব্যবস্থা রাখা উচিত ছিল।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, কর্মকর্তাদের গাফিলতির কারণেই ওই দুর্ঘটনা ঘটেছে।

টাকার অঙ্কে ক্ষতির পরিমাণের হিসাব প্রকল্পের কর্মকর্তারা জানাননি। তবে একাধিক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ক্ষতির পরিমাণ কয়েক কোটি টাকা ছাড়িয়ে যেতে পারে।

পাশাপাশি সাইট অফিস এলাকায় নির্মাণাধীন গ্রিন সিটির পাশে গাছ ভেঙে পড়ে ৭০ ফুট সীমানা প্রাচীর বিধ্বস্ত হওয়াতেও অনেক ক্ষতি হয়েছে।

এদিকে সকালে সরেজমিনে প্রকল্প এলাকা ঘুরে দেখা যায়, ঘটনার পর থেকে স্থাপনা নির্মাণের সব কাজ বন্ধ আছে। নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরো জোরদার করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে রূপপুরে পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের সাইট অফিসের কর্মকর্তা মো. রুহুল কুদ্দুস এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে আমরা মিটিং করছি। পরে বিস্তারিত জানানো যাবে।’ মূলত ঝড়ের কারণেই এ দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে তিনি জানান।

খবরঃ এনটিভি

1 thought on “রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পে গ্যান্ট্রি ক্রেন ভেঙে ওয়ার্কশপ বিধ্বস্ত

  1. ✔★লাইক কমেন্ট করে পাশে অাছি✍
    💘 ⛹ ★মাম্মা নামটা মনে রেখো✍ 💘 ⛹
    ★২৪ ঘন্টা Active থাকি✍
    🏇 🔸 ★Active মাম্মারা এড্ড দাও✍ 🏇 🔸
    ★পাশে থাকলে পাশে পাবেন✍
    ✔১০০% ✔গ্যারান্টি✔
    ✍ ☘ স্পিড 4.1G লাইকার 📌 ✍

    😍 RajshahiExpress.com 😍

    💃–🌍 Taher-bot.Tk-Server01 🌍–💃

Comments are closed.