রোহিত-রায়নার নট আউট! স্যালুট আম্পায়ার

খেলাধুলা

India1-1426751257

ক্রিকেটে কথিত তিন মোড়লের দাপট চলছেই। বাকি দলগুলো যে রীতিমতো সুবিধাবঞ্চিত হচ্ছে, এতে সন্দেহ রাখার উপায় কোথায়? বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যকার ম্যাচে আবারও সেটি প্রমাণিত হলো। সাচ্চা আউটের আবেদন করেও সিদ্ধান্তটি বাংলাদেশের পক্ষে আসেনি। সিদ্ধান্তটি গেল ভারতের পক্ষে?

৩৪তম ওভারে বল করছিলেন মাশরাফি। ওই ওভারে তার করা দ্বিতীয় বলটি রায়নার পায়ে গিয়ে আশ্রয় নেয়। বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা আম্পায়ার ইয়ান গৌল্ডের কাছে জোরালো আবেদন করেন । আঙুল ওঠেনি ইংলিশ আম্পায়ারের। এরপর থার্ড আম্পায়ারের কাছে রিভিউ নেন মাশরাফি। স্টিভ ডেভিস বিষয়টি খতিয়ে দেখলেন। কিন্তু বাংলাদেশ পেল একটি ভুল সিদ্ধান্ত। রায়না নটআউট! আর তাতে মাশরাফিরা বঞ্চিত হলেন।

আইসিসির এলবিডব্লিউর নিয়ম অনুযায়ী, বল লেগ স্টাম্পের লাইনের বাইরে ফেলা যাবে না। যদি তা-ই হয়, তাহলে প্রথম দফায়ই আবেদনটি নাকচ করে দেওয়া হতো। মাশরাফির বলটি লেগ স্টাম্পের একদম বাইরে ছিল না। যদি ছেঁটেছুটে পরীক্ষা করা হয়, তাহলে মাশরাফি পাবেন ৫১%। আর রায়নার পক্ষে যাবে ৪৯%। তারপরও সিদ্ধান্তটি গেল ভারতের পক্ষে! বিতর্ক জন্ম দিলেন বিতর্কিত ইংলিশ আম্পায়ার।

এখানেই বিতর্কের শেষ নয়, ইনিংসের ৪০তম ওভারে রুবেলের বলে আম্পায়ারের একটি ‘বিতর্কিত’ সিদ্ধান্তের কারণে আউট হয়েও বেঁচে যান রোহিত শর্মা! তখন রোহিতের সংগ্রহ ছিল ৯০ রান। রুবেলের ফুলটস বলে ডিপে ইমরুল কায়েসকে ক্যাচ তুলে দেন রোহিত।

কিন্তু হাইটের কারণে তা নো বল দেন ইংল্যান্ডের আম্পায়ার ইয়ান গৌল্ড। টিভি রিপ্লেতে দেখা যায়, বলটি মোটেই নো ছিল না! এমনকি কোমরের থেকেও নিচে ছিল। আম্পায়ারের কল্যাণে নতুন জীবন পেয়ে সেঞ্চুরি করেন রোহিত। বাংলাদেশকে ঠেলে দেওয়া হলো অন্ধকারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.