লোকনাথ বিদ্যালয়ের সামনের রাস্তায় মার্কেট, ৫ বছরেও সরেনি

ক্যাম্পাসের খবর রাজশাহী

১৯৬ বছরের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান লোকনাথ উচ্চবিদ্যালয়। এই বিদ্যালয়ের সামনের রাস্তা দখল করে প্রায় পাঁচ বছর আগে সাহেব বাজারের মুড়িপট্টির ২৭ ব্যবসায়ীকে অস্থায়ীভাবে দোকান করে দেওয়া হয়েছিল। কথা ছিল, এক বছর পর মুড়িপট্টিতে নতুন মার্কেট করে তাঁদের সেখানে পুনর্বাসন করা হবে। কিন্তু মুড়িপট্টিতে আটতলা ভবন হয়েছে ঠিকই, বিদ্যালয়ের সামনের রাস্তার সেই দোকান আর সরেনি। বরং দোকানের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪২টি।

রাজশাহী নগরের রাজারহাতা এলাকায় ১৮২১ সালে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়। এখানে বর্তমানে প্রায় ৮০০ শিক্ষার্থী রয়েছে। এটির ফটকের সামনে দিয়ে চলে গেছে রাস্তাটি। এই রাস্তা রাজশাহী কলেজ ও রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুল, রাজশাহী সরকারি সিটি কলেজ, রাজশাহী বালিকা উচ্চবিদ্যালয় এবং রাজশাহী সার্ভে ইনস্টিটিউটের সংযোগ সড়ক হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এ ছাড়া নির্মাণাধীন রাজশাহী সিটি সেন্টার ও রাজশাহী আঞ্চলিক শিক্ষা কার্যালয়ের সংযোগ সড়ক হিসেবেও ব্যবহৃত হয় এই রাস্তা।

২০১২ সালের মার্চে রাস্তাটির এক পাশ দখল করে মুড়িপট্টির ২৭ দোকানিকে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে ঘর করে দেওয়া হয়। এ সময় সিটি করপোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী আশরাফুল হক বলেছিলেন, নগরের আরডিএ মার্কেটের মুড়িপট্টিতে বহুতল ভবন নির্মাণ করা হচ্ছে। সেখানকার ব্যবসায়ীদের সাময়িকভাবে পুনর্বাসনের জন্য সিটি করপোরেশন নিজ উদ্যোগে রাস্তার ওপর তাঁদের দোকানঘর তৈরি করে দিচ্ছে। মুড়িপট্টির মার্কেটের একতলা পরিমাণ নির্মাণকাজ শেষ হলেই তাঁদের রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে সেখানে জায়গা করে দেওয়া হবে। এতে প্রায় বছর খানেক সময় লাগতে পারে।
গত বুধবার এ বিষয়ে আশরাফুল হক প্রথম আলোকে বলেন, মুড়িপট্টির ব্যবসায়ীদের নতুন ভবনের নিচতলায় পুনর্বাসন করার কথা ছিল। নিচতলা এখনো সারা হয়নি। ঠিকাদার কাজের সময় বাড়িয়ে নিয়েছেন। এখন ওপরের কাজ বন্ধ রেখে তাঁরা নিচতলা ঠিক করতে বলেছেন।

সিটি করপোরেশনের একটি সূত্র বলেছে, যাঁদের দোকান করে দেওয়া হয়েছিল তাঁরা সেই দোকান বিক্রি করে দিয়ে অন্য জায়গায় চলে গেছেন। এখন রাস্তার দোকানে যাঁরা ব্যবসা করছেন তাঁরা কেউ মুড়িপট্টির ব্যবসায়ী নন। তাঁদের উচ্ছেদ না করার ব্যাপারে রাজনৈতিক চাপ রয়েছে।

এ বিষয়ে একজন ব্যবসায়ী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, তাঁরা মুড়িপট্টির একজন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে মাসিক পাঁচ হাজার টাকা ভাড়ায় দুটি দোকান নিয়েছেন। মুড়িপট্টিতে তাঁদের নিজেদের কোনো দোকান ছিল না।

সিটি করপোরেশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়র নিযাম উল আযীম বলেন, গত ১৬ অক্টোবর সাধারণ সভায় লোকনাথ বিদ্যালয়ের সামনের দোকানগুলো উচ্ছেদ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সেটি এখন বাস্তবায়নের অপেক্ষায় করপোরেশনের সম্পত্তি শাখায় রয়েছে। যত বাধাই আসুক নিয়ম অনুযায়ী দোকানগুলো উচ্ছেদের ব্যবস্থা করা হবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

খবরঃ প্রথম-আলো

2 thoughts on “লোকনাথ বিদ্যালয়ের সামনের রাস্তায় মার্কেট, ৫ বছরেও সরেনি

Comments are closed.