শর্ত দিয়ে দোকানপাট-শপিংমল খোলার অনুমতি

জাতীয়

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সাধারণ ছুটির মধ্যে শর্ত দিয়ে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান খোলার অনুমতি দিয়েছে সরকার। রমজান ও ঈদ সামনে রেখে সীমিত পরিসরে ব্যবসা-বাণিজ্য চালু রাখার স্বার্থে দোকান-পাট খোলা রাখা যাবে।

সোমবার (৪ মে) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় চলমান ছুটি আগামী ১৬ মে পর্যন্ত বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলার নির্দেশনায় বলা হয়, রমজান এবং ঈদ-উল-ফিতরকে সামনে রেখে সীমিত পরিসরে ব্যবসা-বাণিজ্য চালু রাখার স্বার্থে দোকান-পাট খোলা রাখা যাবে।

তবে ক্রয়-বিক্রয়কালে পারস্পরিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ অন্য স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন করতে হবে। বড় বড় শপিংমলের প্রবেশমুখে হাত ধোয়ার ব্যবস্থাসহ স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রাখতে হবে। শপিংমলে আগত যানবাহনকে অবশ্যই জীবাণুমুক্ত করার ব্যবস্থা রাখতে হবে।

আর দোকানপাট ও শপিংমল আবশ্যিকভাবে বিকেল ৫টার মধ্যে বন্ধ করতে হবে, জানানো হয় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনায়।

গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত রোগী পাওয়ার পরে ২৬ মার্চ থেকে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। ওই সময় থেকেই গণপরিবহনের সঙ্গে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানও বন্ধ রয়েছে। এতে ক্ষতির মুখে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা।

তবে গত ২৬ এপ্রিল পোশাক কারখানা খুলে দেওয়া হলেও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের বিষয়ে দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী সীমিত পরিসরে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণসাপেক্ষে যাতে রোজা ও ঈদ সামনে রেখে দোকানপাট খোলা রাখা যায় সে বিষয়ে নির্দেশনা দেন।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজ