শহরেও বিধবা ভাতা চালুর চেষ্টা করা হবে : বাদশা

রাজশাহী

রাজশাহী-২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেছেন, সমাজে বিধবা নারীদের নানা রকমের কষ্ট সহ্য করতে হয়। সরকার তাদের ভাতা দেয়। কিন্তু সিটি করপোরেশন এলাকায় বিধবা ভাতা চালু নেই। আমি চাই, সিটি করপোরেশন এলাকাতেও বিধবা ভাতা চালু হোক। তাই বিষয়টি নিয়ে আমি সংসদে একাধিকবার কথা বলেছি। আবারও বিষয়টি গুরুত্বের সাথে উপস্থাপন করবো। সিটি করপোরেশন এলাকায় বিধবা ভাতা চালু করার জন্য আমি চেষ্টা চালিয়ে যাব।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজশাহী মহানগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্ট এলাকায় নিজের সংসদীয় কার্যালয়ে বয়স্ক ভাতার বই বিতরণকালে তিনি এ কথা বলেন। বাদশা বলেন, প্রতিটি মানুষের উন্নয়নের দিকে লক্ষ্য রেখে আমি কাজ করি। সিটি করপোরেশন এলাকার বিধবা নারীদের ভাতা পাবার যে দাবি সেটা আমি পূরণের সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাবো।

বাংলাদের ওয়ার্কার্স পার্টির এই সাধারণ সম্পাদক বলেন, সিটি করপোরেশন এলাকায় যেন বিধবা ভাতা চালু করা হয় তার জন্য আগামীতে আমি সংসদে পূর্ণাঙ্গভাবে যুক্তিগুলো তুলে ধরবো। এতে নিশ্চয়ই সামনের বছর থেকে বিধবা ভাতা চালু করা সম্ভব হবে। আর এটি চালু হলে অনেক নারীর সুবিধা হবে।
পরে সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা ৪৪ জনের মধ্যে বয়ষ্কভাতার বই বিতরণ করেন। এ সময় মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি লিয়াকত আলী লিকু, সাধারণ সম্পাদক দেবাশীষ প্রামানিক দেবু, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য আবুল কালাম আজাদ, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রফিকুল ইসলাম পিয়ারুল, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল হক তোতা, সমাজ সেবা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা আশিকুর জামান আশিক, মহানগর যুবমৈত্রীর সভাপতি মনিরুজ্জামান মনি, সাধারণ সম্পাদক আবদুল খালেক বকুল, মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সদস্য নাজমুল করিম অপু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ দৈনিক সানশাইন