শাহরিয়ার আলমের প্রচারণায় ক্রিকেটার মিরাজ

চারঘাট বাঘা রাজশাহী

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের নির্বাচনী প্রচারণায় রাজশাহী-৬ (বাঘা-চারঘাট) আসন ঘুরে গেছেন জাতীয় দলের তারকা ক্রিকেটার মেহেদী হাসান মিরাজ।

রোববার (২৩ ডিসেম্বর) বিকেলে তিনি অল্প সময়ের জন্য সংসদীয় এ এলাকা ঘুরে যান। এসময় শাহরিয়ার আলমের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায়ও অংশ নেন।

পরে তাকে নিয়ে সেলফি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজ অ্যাকাউন্টের পেজে বন্ধু ও ফলোয়ারদের জন্য ছবিটি শেয়ার দেন শাহরিয়ার আলম। বিকেলে ৪টার দিকে আপলোড করা ওই ছবির শিরোনামে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম লেখেন ‘চারঘাট-বাঘায় মেহেদী হাসান মিরাজ’। সেলফিতে উভয়কেই ‘ভি’ চিহ্ন নিয়ে হাস্যোজ্জ্বল দেখাচ্ছে। সন্ধ্যা সোয়া ৭টা পর্যন্ত তা ২০০ জন শেয়ার করেছেন।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের সহকারী একান্ত সচিব (এপিএস) সিরাজুল ইসলাম সিরাজ বাংলানিউজকে জানান, মেহেদী হাসান মিরাজ বিকেলে সংসদীয় ওই এলাকা ঘুরে গেছেন। মিরাজ প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের নিজ এলাকা বাঘার আড়ানী ও চারঘাটের অনুপমপুরে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশও নিয়েছেন।

এসময় নির্বাচনী প্রচারণা নতুন মাত্রা যোগ হয়। বাংলাদেশ দলের এই অলরাউন্ডারকে কাছে পেয়ে স্থানীয় ভোটাররা উচ্ছ্বসিত হয়ে ওঠেন। তাকে দেখতে এলাকায় মানুষের ঢল নামে। পরে সবার সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করে বিকেলেই ফিরে যান মিরাজ।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম রাজশাহী-৬ (চারঘাট-বাঘা) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী। এ আসন থেকেই তিনি পর পর দু’বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। এর মধ্যে দ্বিতীয় মেয়াদে নির্বাচিত হওয়ার পর জোট সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পান। এরইমধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন তিনি।

রাজশাহী-৬ (চারঘাট-বাঘা) আসনে এবার মোট ভোটার ৩ লাখ ৪ হাজার ২৯৮ জন। এর মধ্যে নারী ভোটার ১ লাখ ৫১ হাজার ৬৯৭ জন ও পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৫২ হাজার ৬০১ জন। আসনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১০৭টি এবং ভোটকক্ষের সংখ্যা ৬২১টি।

এর মধ্যে পুরুষদের ভোট কক্ষ ৩১১টি ও নারীদের ৩১০টি। চারঘাটে ৫২টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ভোটকক্ষের সংখ্যা ৩২৯টি। বাঘায় ৫৫টি কেন্দ্রের মধ্যে ভোটকক্ষের সংখ্যা ২৯২টি। আসনটিতে আওয়ামী লীগ প্রার্থী পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। বিএনপির প্রার্থী ছিলেন- সদ্য সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সাঈদ চাঁদ।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের পদ থেকে পদত্যাগপত্র গৃহীত হওয়ার আগে মনোনয়নপত্র দাখিল করায় তার প্রার্থিতা স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট।

পৃথক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের অবকাশকালীন হাইকোর্ট বেঞ্চ ২০ ডিসেম্বর রুলসহ এ আদেশ দেন। বর্তমানে জাতীয় পার্টি ও ইসলামী আন্দোলনের দুই প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন শাহরিয়ার আলমের সঙ্গে। ফলে সুবিধাজনক অবস্থানেই রয়েছেন তিনি।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজ২৪